ঢাকা, রবিবার, ৩ ভাদ্র ১৪২৬, ১৮ আগস্ট ২০১৯
bangla news

শিরোপা জয়ের লড়াইয়ে মুখোমুখি বসুন্ধরা কিংস-শেখ রাসেল

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১২-২৫ ১০:০৩:২৬ পিএম
স্বাধীনতা কাপের ফাইনালে মুখোমুখি হবে বসুন্ধরা কিংস ও শেখ রাসেল/ ফাইল ফটো

স্বাধীনতা কাপের ফাইনালে মুখোমুখি হবে বসুন্ধরা কিংস ও শেখ রাসেল/ ফাইল ফটো

ঘরোয়া ফুটবলে শেখ রাসেল প্রতিষ্ঠিত নাম। তাদের ঝুলিতে আছে তিনটি শিরোপা। তুলনায় বসুন্ধরা কিংস নবীন। কিন্তু শক্তিমত্তায় যেকোনো দলকে চ্যালেঞ্জ জানানোর মতো দল গড়ে নবীন তকমা আগেই ঝেড়ে ফেলেছে দলটি। এইতো গেল ফেডারেশন কাপের ফাইনালে উঠে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল অস্কার ব্রুজোনের শিষ্যরা। এবারও শক্তিশালী সব প্রতিপক্ষকে একের পর এক পেছনে ফেলে ফাইনালের টিকেট কেটেছে দলটি। এবার শুধু শিরোপা জয়ের পালা।

বুধবার (২৬ ডিসেম্বর) স্বাধীনতা কাপের দশম আসরের ফাইনালে মুখোমুখি হবে বসুন্ধরা কিংস ও শেখ রাসেল। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বিকেল সাড়ে ৪টায় অনুষ্ঠেয় এই ম্যাচটি মূলত শক্তি আর ঐতিহ্যের লড়াই। এই লড়াইয়ে জিতেই ঘরোয়া ফুটবলে বছরের শেষটা রাঙাতে চাইবে দুই দলই।

বসুন্ধরা কিংসের আগমন ঘরোয়া ফুটবলকে অনেকটাই জাগিয়ে তুলেছে। দলে বিশ্বকাপে খেলার অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ফুটবল তারকার উপস্থিতি, দেশের সেরা তারকাদের সম্মিলন আর প্রতি ম্যাচেই মাঠে পর্যাপ্ত দর্শক মিলিয়ে ঘরোয়া ফুটবলের সেই পুরনো আবেশ যেন ফিরিয়ে এনেছে দলটি। এবার প্রথম শিরোপার স্বাদ নিয়ে নিজেদের নামের পাশে চ্যাপিয়ন তকমা যুক্ত করতে চায় দলটি।

গ্রুপ পর্বেই একবার পরস্পরের মুখোমুখি হয়েছিল বসুন্ধরা কিংস ও শেখ রাসেল। সেই ম্যাচ গোলশূন্য ড্র হয়েছিল। কিন্তু এবার যেহেতু ফাইনাল, তাই একটি দলের হাতে শিরোপা উঠবেই। শেখ রাসেলের জন্য এবার ফাইনালটি বিশেষ। কারণ, পাঁচ বছর পর স্বাধীনতা কাপের ফাইনালে উঠেছে তারা। আর বসুন্ধরা কিংসের জন্য এবারই প্রথম অংশ নিয়ে প্রথমবারেই শিরোপার স্বাদ পাওয়ার হাতছানি।

বসুন্ধরা কিংস ও শেখ রাসেল উভয় দলই ছিল একই গ্রুপে। রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটির বিপক্ষেও ৩-২ গোলের জয় নিয়ে সেমিতে পা রাখে বসুন্ধরা কিংস। এর আগে এর আগে ‘ডি’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হয়ে নকআউট রাউন্ডে উঠে আসে বসুন্ধরা। গ্রুপ পর্বে নাসিরউদ্দিন ও বখতিয়ারের গোলে শেখ জামাল ধানম-ি ক্লাবকে ২-০ গোলে হারানোর পর শেখ রাসেলের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে বসুন্ধরা। অপরাজিত গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ আটে উঠে তারা। একই গ্রুপ থেকে শেখ জামালের সঙ্গে ড্র করে কোনো জয় ছাড়াই অপরাজিত হয়ে শেষ আটে পা রাখে শেখ রাসেলও।

শেখ রাসেল সেই ২০১৩ সালে স্বাধীনতা কাপের শিরোপা জিতেছিল। এরপর পাঁচ বছর এই পর্যায়ে আসতে ব্যর্থ হয়েছে দলটি। এবার সেই অপূর্ণতা মেটাতে মরিয়া দলটি। কিন্তু তাদের সেই স্বপ্নের পথে বড় বাধা বসুন্ধরা কিংস। বিদেশী তারকা ফুটবলাররা ছাড়াও দলটির দেশি ফুটবলার যেমন নাসিরউদ্দিন, মাসুক মিয়া জনিরা আছেন দারুণ ফর্মে। 

দেশি-বিদেশি তারকা ফুটবলারদের নৈপুণ্যে সেমিফাইনালে ফেডারেশন কাপের চ্যাম্পিয়ন আবাহনী লিমিটেডের বিপক্ষে টাইব্রেকারে ৭-৬ গোলে জয় পায় বসুন্ধরা কিংস। তবে স্বাধীনতা কাপের ফাইনালে সেই ফর্মের পুনরাবৃত্তি হবে কিনা তা দেখতে অপেক্ষায় থাকতে হবে আগামীকাল ম্যাচের শেষ বাঁশি বাজা পর্যন্ত।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৮
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ফুটবল
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2018-12-25 22:03:26