ঢাকা, রবিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৬ মে ২০১৯
bangla news

মেসির ইনজুরি ঠেকাতে পারেনি বার্সার শীর্ষস্থান

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১০-২১ ৩:৫৭:৪৩ এএম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

অবশেষে লা লিগায় সেভিলার বিপক্ষে জয়ের দেখা পেল বার্সেলোনা। তিন ড্র ও এক হারের পর চতুর্থ ম্যাচে তারা পেলো জয়ের এ সাফল্য।

রোববার (২১ অক্টোবর) ন্যু ক্যাম্পে ৪-২ গোলে সেভিয়াকে হারিয়ে লিগের শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার করলো বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

ইনজুরি নিয়ে মাঠ ছাড়লেন মেসি

খেলার মাত্র ২ মিনিটে সেভিলার রক্ষণ ভেঙে সেমেদো ডি-বক্সের মধ্যে বল বাড়িয়ে দেন আর্জেন্টাইন ফরওয়ার্ড লিওনেল মেসিকে। প্রতিপক্ষের রক্ষণ ফাঁকি দিয়ে বল পাঠান ফিলিপ্পে কৌতিনিয়োর কাছে। সুযোগ পেয়ে গোলরক্ষক থোমাস ভাকলিককে কোনও সময় দিলেন না ব্রাজিলিয়ান তারকা কৌতিনিয়ো।

এরপর ৬ মিনিটে গোলের সুযোগ পেয়েছিলো সেভিলা। কিন্তু কাজে লাগাতে পারেন নি। গিলেরমো আরানা বার্সা গোলরক্ষক মার্ক আন্দ্রে টের স্টেগেনকে পরাস্থ করলেও বল জড়াতে পারেননি জালে। গোলপোস্টই দাঁড়ালো দুর্ভাগ্যজনক বাধা হয়ে। 

এবার সুর্ভাগ্যের আগে সুযোগ মেসির। ১২ মিনিটে লুই সুয়ারেসের লম্বা পাস ডান প্রান্ত থেকে বাঁ পায়ের বাঁকানো শটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে নেন লিওনেল মেসি।

কিন্তু ১৭ মিনিটে দুর্ভাগ্যের ডাক পায় মেসি। সেভিলার মিডফিল্ডার ফ্রাঙ্কো ভাজকুয়েজের আঘাতে হাতে খারাপভাবে চোটে পড়েন মেসি। বাধ্য হয়ে বার্সা অধিনায়ককে মাঠ ছাড়ে হাতে ব্যন্ডেজ নিয়ে বসে থাকতে হয় সাইডলাইনে। তার জায়গায় মাঠে নামেন উসমান দেম্বেলে।

তবে তাতে দাপট কমে নি বার্সার। ইনজুরির তৃতীয় মিনিটে দারুণ সুযোগ পেয়েও দুর্বল শটের কারণে লক্ষ্যভ্রষ্ট হলেন বার্সার মিডফিল্ডার ইভান রাকিতিচ। ৩৬ মিনিটে কৌতিনিয়োর বাঁকানো শট গোলবারের খানিকটা ওপর দিয়ে চলে যায় মাঠের বাইরে।

এছাড়া বিরতির পর ৫৪ ও ৫৮ মিনিটে আর্থার ও সুয়ারেসের শট গোলবারের পাশ দিয়ে চলে যাওয়ায় তৃতীয় গোলের দারুণ দু’টি সুযোগ হারায় বার্সা। অবশ্য ৬৩ মিনিটে পেনাল্টি থেকে স্কোর ৩-০ হয় বার্সার। দলের কপাল পুড়িয়ে বল বিপদমুক্ত করতে গিয়ে সুয়ারেসকে ফাউল করেছিলেন সেভিলার গোলরক্ষক ভাকলিক। 

স্পট কিক থেকে তৃতীয় গোল করেন উরুগুয়ান স্ট্রাইকার সুয়ারেস। ৬৯ মিনিটে আবার রাকিতিচের বাঁ পায়ের শট গোলবারের ওপর দিয়ে পরিহাস করে চলে যায়। এর ৪ মিনিট পর কৌতিনিয়োর ফ্রি কিক অনেক উঁচুতে লাফিয়ে হেড নেন লংলে। কিন্তু বল গোলপোস্টের পাশ দিয়ে চলে যায়। পরের মিনিটে সুয়ারেসের শট ঠাণ্ডা মাথায় রুখে দেন ভাকলিক।

এবার ৭৯ মিনিটে বানেগারের পাসে বক্সের প্রান্ত থেকে শট নিয়ে ১ গোল পরিশোধ করে পাবলো সারাবিয়া। ম্যাচ শেষ হওয়ার ৪ মিনিট আগেও দ্বিতীয় গোল পেয়ে যেতে পারতো সেভিলা। তা না হলেও সারাবিয়া ৮৭ মিনিটে আবার বার্সার জালে বল জড়ান। কিন্তু রেফারি সেটা বাতিল করে সেভিলার মিডফিল্ডার হাত দিয়ে বল নিয়ন্ত্রণ করার অপরাধে। ব্যর্থতা কাটিয়ে ৮৮ মিনিটে দুর্দান্ত গোল করেন রাকিতিচ।

আর বেন ইয়েডারের অ্যাসিস্টে মুরিয়েলের গোলে ৪-২ ব্যবধানে শেষ হয় খেলা।

বাংলাদেশ সময়: ০৩৫৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ২১, ২০১৮
এমএএম/জিপি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2018-10-21 03:57:43