ঢাকা, সোমবার, ১১ চৈত্র ১৪২৫, ২৫ মার্চ ২০১৯
bangla news

একশ তো একশই, একশ করলে তো আনন্দ হবেই: সৌম্য

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১০-১৯ ৮:১৪:০২ পিএম
সেঞ্চুরির পর সৌম্য সরকারের উদযাপন-ছবি: শোয়েব মিথুন/বাংলানিউজটুয়েন্টিফোর.কম

সেঞ্চুরির পর সৌম্য সরকারের উদযাপন-ছবি: শোয়েব মিথুন/বাংলানিউজটুয়েন্টিফোর.কম

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে মাঠে নামার একদিন আগেই জাতীয় ক্রিকেট লিগে খেলে এসেছেন। খুলনার হয়ে দুই ইনিংসেই ফিফটি আর ৫ উইকেট নিয়ে আলো ছড়ানোর একদিন পরই বিসিবি একাদশের নেতৃত্ব দিলেন। করলেন দুর্দান্ত সেঞ্চুরি। এমন এক ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলে বেশ খুশি জাতীয় দলের একসময়ের নিয়মিত ওপেনার সৌম্য সরকার।

আজ শুক্রবার (১৯ অক্টোবর) বিকেএসপিতে প্রস্তুতি ম্যাচে সৌম্য সরকারের অনবদ্য সেঞ্চুরির ইনিংসে ৮ উইকেটের বড় জয় পেয়ছে বিসিবি একাদশ। কিন্তু এই ইনিংস খেলা মোটেই সহজ ছিল না তার জন্য। দীর্ঘ ভ্রমণ আর ঘরোয়া ক্রিকেটে টানা খেলার ধকল তো আছেই, তার উপর আবার জিম্বাবুয়ের মতো দলের বিপক্ষে হুট করে মাঠে নেমে তাও আবার নেতৃত্বের দায়িত্ব সামাল দেওয়ার পাশাপাশি সেঞ্চুরি তুলে নেওয়া সত্যি কঠিন কাজ। ম্যাচ শেষে সৌম্য তা স্বীকার করেও নিলেন। তবে সেজন্য তার বিশেষ প্রস্তুতি ছিল বলেও জানালেন। 

'শারীরিক দিক থেকে একটু কঠিন ছিল। মানসিক দিক থেকে অন্যভাবে প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। খেলতেই যেহেতু হবে ওই ভাবে না ভেবে রাতের মধ্যে যতটুকু সম্ভব রিকভারি করে খেলা যায়। সকাল বেলায়ও একটা জার্নি ছিল। সে সব মাথায় না নিয়ে চেষ্টা করেছি যতটা স্বাভাবিক খেলা খেলা যায়। যতক্ষণ সুস্থ থাকব বা শরীর পারমিট করবে প্রপার ক্রিকেট খেলব।'

সেঞ্চুরি পাওয়ার পর অনেকটা উল্লাসের সঙ্গে উদযাপন করতে দেখা যায় সৌম্যকে। এটা কি চাপমুক্তির আনন্দ থেকেই? এমন প্রশ্নের জবাবে সৌম্য জানালেনএই সেঞ্চুরি পাওয়ার আগের গল্পটা।

'প্রথমে তো এই খেলা আছে জানতাম না। খুলনাতেই ছিলাম, পরিকল্পনা ছিল বাড়িতে যাব। হঠাৎ করে যখন বলা হল খেলতে হবে। প্রথমে একটু খারাপ লেগেছিল। অনেক দিন পর একটা ছুটি পেয়েছিলাম সেটাও মিস। আবার চিন্তা করলাম যেহেতু খেলতেই হবে এসব চিন্তা না করাই ভালো। মনোযোগ দিয়ে খেলাই ভালো। সেই চেষ্টাই করেছি।'

আর মনোযোগ দিয়ে খেলেছেন বলেই অমন অসাধারণ সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন সৌম্য। এমন সেঞ্চুরি তার কাছে তাই স্পেশাল কিছুই।

'একশ তো একশই, একশ করলে তো আনন্দ হবেই।'

'সেঞ্চুরি তো অবশ্যই স্পেশাল। কিছু একটা ত্যাগ করে কিছু একটা পাওয়া তো অবশ্যই স্পেশাল।'

ব্যাট হাতে অনিয়মিত হওয়ার কারণে জাতীয় দলেও অনিয়মিত হয়ে গেছেন বছরখানেক আগেও জাতীয় দলের হয়ে বিধ্বংসী ব্যাটিং করা সৌম্য। আজকের ম্যাচে খেলতে এসেছেন চারদিনের ম্যাচ খেলে। আলাদা ফরম্যাট, চাপটাও আলাদা হওয়ারই কথা। এমন দারুণ ব্যাটিং ম্যাচ জেতানোর পর চাপমুক্ত অনুভব করারই কথা। কিন্তু সৌম্য বিষয়টাকে এভাবে দেখতে নারাজ। 

'ওই রকম কোনো চিন্তা করি নাই যে, এখানে ভালো করে আমি রিলিফ হবো। আমি খেলছিলাম জাতীয় লিগে। সেখান থেকে এসে এখানে খেলা, এটা অন্য ফরম্যাটে ছিল। চেষ্টা ছিল উইকেটে থাকার। দেখতে চেয়েছিলাম কতক্ষণ উইকেটে থাকতে পারি। আজকে সুযোগই তেমন ছিল। লক্ষ্য খুব একটা বড় ছিল না। সেই চেষ্টাই করেছি, উইকেটে কতক্ষণ থাকতে পারি।'

জাতীয় লিগে বেশ ছন্দে আছেন সৌম্য। প্রথম টায়ারের ম্যাচে সেঞ্চুরি পাওয়ার পর তৃতীয় রাউন্ডের ম্যাচে দুই ইনিংসেই সত্তর ছাড়ানো ইনিংস আর সঙ্গে ৫ উইকেট। আর আজ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সেঞ্চুরি। সবমিলিয়ে তো তিনি ভালো ছন্দেই আছেন। তবে এবারেও বিষয়টা অন্যভাবে দেখতে চাইছেন সৌম্য।

'ছন্দে আছি এমন না। রান করলে তো অবশ্যই সবার ভালো লাগে। তেমন কোনো চিন্তা করিনি। চেষ্টা করছি নিজেকে খুশি রাখার। অবশ্যই ভালো খেললে ভালো লাগে। চেষ্টা করেছি বেশ সময় ক্রিজে থেকে ব্যাটিং করার।'

বাজে ফর্মের কারণে জাতীয় দলের বাইরে চলে গেছেন সৌম্য সরকার। যদিও এবারই প্রথম নয়। তবে ফেরার জন্য তাড়াহুড়ো না করে নিজের স্বাভাবিক খেলাটাই খেলতে চান তিনি।

'একটা সময় চিন্তা ছিল যে, বাইরে ছিলাম দলে ফিরতে আমাকে ভালো করতে হবে। এখন চেষ্টা করি যে, তেমন কোনো চিন্তা না করে নিজের খেলাটা খেলতে।'

বাংলাদেশ সময়: ২০১০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৯, ২০১৮
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ক্রিকেট
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14