[x]
[x]
ঢাকা, শনিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৫, ২০ অক্টোবর ২০১৮
bangla news

রানাতুঙ্গার বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১০-১১ ১:৩৩:২১ পিএম
অর্জুনা রানাতুঙ্গা।  ছবি: সংগৃহীত

অর্জুনা রানাতুঙ্গা। ছবি: সংগৃহীত

ক্রীড়া জগতে উঠে আসছে একের পর এক যৌন হয়রানির খবর। ফুটবলের তারকা পর্তুগালের ফরোয়ার্ড ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর বিরুদ্ধে একাধিক নারী যৌন হয়রানির অভিযোগ তুলেছেন। এমনকি তার বিরুদ্ধে মামলাও করা হয়েছে। এবার সেই কালো দাগ লাগলো ক্রিকেটেও। শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি অর্জুনা রানাতুঙ্গার বিরুদ্ধেও উঠেছে যৌন হয়রানির অভিযোগ।

মূলত ‘হ্যাশট্যাগ মি টু’ এর সুবাদে তারকাদের বিভিন্ন কলঙ্ক উঠে আসছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। বিশেষ করে অতীতে কোনো অপরাধ করে বেঁচে গেলেও সেই ঘটনাই আবার নতুন করে উঠে আসছে এই হ্যাশট্যাগে। যেন নিজের ওপর হয়ে যাওয়া অপরাধ জানিয়ে দিয়ে ভার মুক্ত হচ্ছেন ভুক্তভোগীরা।

আর এই হ্যাশট্যাগ মি টু-তে এবার ফেঁসে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ও বর্তমান মন্ত্রী রানাতুঙ্গা। এক ভারতীয় নারী বিমান কর্মী রানাতুঙ্গার বিপক্ষে যৌন হেনস্তার অভিযোগ আনেন। ফেসবুকের এক পোস্টে ওই বিমানকর্মী দাবি করেন, লঙ্কান সাবেক এই ক্রিকেটার ভারত-শ্রীলঙ্কা সিরিজ চলাকালীন সময়ে তার শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেন।

এই নারীর অভিযোগ থেকে রেহাই পাননি একসময়ের জনপ্রিয় সংগীত তারকা অভিজিৎ ভট্টাচার্যও। অভিযোগের পোস্টে ওই নারী লেখেন, ‘মুম্বাইয়ের জুহু সেন্টার হোটেলের লিফটে ভারতীয় ও শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটারদের দেখে আমার সহকর্মী। সে আবার ক্রিকেটারদের অন্ধভক্ত। তাদের অটোগ্রাফ নেওয়ার জন্য খেলোয়াড়দের রুমে যেতে চায় সে। ওর নিরাপত্তা নিয়ে ভয়ে থাকায় আমিও ওর সঙ্গ নেই।’

‘আমাদের পানীয় (সম্ভবত কিছু মেশানো ছিল) নেওয়ার অনুরোধ করা হয়। আমি অস্বীকৃতি জানিয়ে সঙ্গে থাকা বোতলের পানিতেই আস্থা রাখি। ওরা ছিল ৭ জন ও আমরা দুজন। এমন অবস্থায় তারা দরজায় চেইন লাগিয়ে দিল। অস্বস্তি বাড়ায় আমি ওকে আমাদের রুমে ফিরে আসার জন্য জোর করতে শুরু করলাম।’

‘কিন্তু সে তো ততক্ষণে মোহে পড়েছে (বড় তারকাদের দেখে)। এ কারণে পুলের চারপাশে হাঁটতে যেতে চাইল তাদের সঙ্গে। তখন সন্ধ্যা সাতটা বাজে। পুলের পথটা ছিল হোটেলের পেছনের দিকে, পুরোটাই অন্ধকার। আমি পেছনে ফিরে তাকালাম কিন্তু আমার বন্ধু আর ভারতীয় ক্রিকেটাররা কাউকেই দেখতে পেলাম না।’

‘রানাতুঙ্গা আমার কোমর ধরে আমার ঊর্ধ্বাঙ্গের স্পর্শকাতর অংশে হাত দেয়। আমি ভয়ংকর কিছু হতে যাচ্ছে, এ ভয় পেয়ে চিৎকার শুরু করি। ওর হাত ও পায়ে লাথি মেরেছি। রানাতুঙ্গাকে ভয়ংকর পরিণতির কথা বলে ভয় দেখাই। বলি, পাসপোর্ট বাতিল করে দেব, পুলিশের কাছে জানাব। কারণ সে একজন বিদেশি নাগরিক হয়ে ভারতে এসে ভারতীয় নারীর সঙ্গে খারাপ আচরণ করছে। সময় নষ্ট না করে চিৎকার করতে করতে দৌড়ে হোটেলের অভ্যর্থনায় গিয়ে হাজির হলাম। কিন্তু অভ্যর্থনা থেকে আমাকে জানিয়ে দেয়, “এটা আপনার ব্যক্তিগত ব্যাপার”  তারা আমাকে সাহায্য করতে পারবে না।’

#মি-টু ক্যাম্পেইন এমন সব মানুষের মুখোশ খুলে দিচ্ছে যা অনেকেই ভাবতেও পারেননি। সমাজের বিভিন্ন শ্রেণির নারীরা তাদের বিরুদ্ধে হওয়া যৌন হেনস্তার অভিযোগ প্রকাশ্যে আনছেন। এই তালিকা থেকে বাদ যাননি ভারতের মন্ত্রী এম জে আকবর, অভিনেতা অলোক নাথ, নানা পাটেকর, বিবেক অগ্নিহোত্রী, বিকাশ বহেল, রজত কাপুরদের মতো ব্যক্তিও। বাদ যাননি হলিউডের তারকারাও।

বাংলাদেশ সময়: ১৩২৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ১১, ২০১৮
এমকেএম/এমএমএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ক্রিকেট শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট (এসএলসি)
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache