ঢাকা, সোমবার, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৩ আগস্ট ২০২০, ১২ জিলহজ ১৪৪১

খেলা

মমতার কণ্ঠে নিরাশার সুর

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১১-১১-০৯ ০৫:৪৬:১৬ পিএম
মমতার কণ্ঠে নিরাশার সুর

ঢাকা: তখন তিনি কোচ হিসেবে সদ্য দায়িত্বপ্রাপ্ত হয়েছেন। অদৃশ্য বিশ্বাস থেকে বলেছিলেন বাংলাদেশ দল বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে।

পুঙ্খানুপুঙ্খরূপে মেয়েদের খেলা দেখার পর বলছেন,‘প্রতিটি ম্যাচ আলাদা করে জিততে চাই’।

প্রমীলা জাতীয় দলের প্রধান কোচ মমতা মাবেনকে অনেক প্রশ্ন করেও সেই পুরনো উত্তরটা পাওয়া গেলো না। তিনি নতুন করে উত্তর সাজিয়েছেন। এখন মেয়েগুলোকে কোমর ভাঙ্গা কেউটে মনে হয় তার কাছে। ফুসফাস শব্দ তুললেও একরতি এগিয়ে যাওয়ার সামর্থ্য নেই।

পাকিস্তান, ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং আয়ারল্যান্ডের কাছ থেকে পয়েন্ট পেলেই না শীর্ষ চারে খেলার আশা করা যায়। যে ফরম্যাটে খেলা হবে, তাতে করে গোলেমালে সেমিফাইনালে যাওয়ার সুযোগও নেই। গ্রুপ পর্বের খেলা শেষ করে কোয়ার্টার ফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে হবে। কাজটা যে সহজ নয় বুঝে গেছেন ভারত থেকে আগত জাতীয় দলের প্রধান কোচ। তাই তো অনেক ভেবেচিন্তে পা ফেলছেন।

প্রস্তুতি সম্পর্কে যেমন বললেন,“অনেক ভালো প্রস্তুতি হয়েছে। আগের চেয়ে কিছুটা উন্নতিও করেছে মেয়েরা। কিন্তু এই দলটি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের শিশু। পাকিস্তান এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের মতো টেস্ট ক্রিকেটে স্বীকৃত দলের বিপক্ষে খেলতে হবে। কোন নিশ্চয়তা দেওয়ার মতো অবস্থা তৈরি হয়নি। আমরা এটুকু বলতে পারি আলাদা আলাদা করে ম্যাচ জিতে এগুতে চেষ্টা করবো। ”

চারে না হয় নাই থাকলো, ছয়ে জায়গা হবে তো? সেই একই উত্তর,“আমরা প্রতিটি ম্যাচ আলাদা করে জেতার চেষ্টা করবো। ”

আশার আলো দেখার মতো খেলা খেলছেনও না বাংলাদেশের মেয়েরা। অক্টোবরে শ্রীলঙ্কা সফরে তিনটি প্রীতি ওয়ানডে  ম্যাচ খেলে সবগুলোতেই হেরেছে। ঢাকায় বুধবার সেই দলের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে নেমে হেরেছে ৬৪ রানে। শ্রীলঙ্কার ১৯৫ রানের জবাবে ১৩১ করে অলআউট হয়ে যায় স্বাগতিক দল।

ক্রিকেটে ফিল্ডিংকে শিল্পের পর্যায়ে বিবেচনা করা হয়। সেই শিল্পের এমন হতোচ্ছিরি রূপ দেখালেন বাংলাদেশ দলের মেয়েরা যা দেখে বিসিবির কর্তাব্যক্তিদের চক্ষু চড়কগাছ হওয়ার জোগার। আশার প্রদীপে খালি খালি গ্যালন গ্যালন তেল ঢালছেন, বিসিবির মহিলা শখার চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল ফুয়াদ রেদোয়ান এবং যাকে তিনি ম্যানেজার করেছেন সেই দিপুরায় চৌধুরী। ভালো ভালো বলে মুখে ফেনা তুলে ফেলতে দেখা যায় তাদেরকে।

ভবিষ্যতের স্বপ্ন আপাতত শিকেয় তোলা থাক। বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের আগে দেশের মাঠে যে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাচ্ছে বাংলাদেশ দল লাভের লাভ সেটাই। শনিবার বিকেএসপিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে স্বাগতিকরা।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৯, ২০১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa