[x]
[x]
ঢাকা, শনিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৫, ২০ অক্টোবর ২০১৮
bangla news

‘পরিকল্পনা করে নয়, ধারাবাহিক থাকলেই জয় আসবে’ 

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৯-১৮ ৩:৪৬:১৬ পিএম
মেহেদি হাসান মিরাজ। ছবি: শোয়েব মিথুন

মেহেদি হাসান মিরাজ। ছবি: শোয়েব মিথুন

আফগানিস্তানের বিপক্ষে সবশেষ সিরিজে হার দেখতে হয়েছিল বাংলাদেশকে। এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বড় জয় পেলেও দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের সামনে ফের দুশ্চিন্তার নাম সেই আফগানিস্তান। প্রতিশোধ নিতে আফগানিস্তানকে হারাতেই হবে এমন কোনো পরিকল্পনা নয়, নিজেদের সেরাটা দিতেই মাঠে নামবে টাইগাররা, এমনটাই ভাবনা বাংলাদেশের অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান মিরাজের।

ফরম্যাট অবশ্য ভিন্ন। যেখানে ভারতের দেরাদুনে আফগানদের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেছিল টাইগাররা। তবে এশিয়া কাপে খেলতে হবে ওয়ানডে ফরম্যাটে।

এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচে জিতে কিছুটা হলেও নির্ভার আছে বাংলাদেশ দল। প্রথম পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে বৃহস্পতিবার (২০ সেপ্টেম্বর) মুখোমুখি হবে আফগানিস্তানের। চেনা শত্রুকে হারাতেই হবে বা আগের হারের প্রতিশোধ নিতে হবে এমন কিছুই ভাবছে না বাংলাদেশ, জানালেন মেহেদি হাসান। নিজেদের স্বাভাবিক খেলা খেলেই হারানো সম্ভব, পরিকল্পনা করে নয়, এমনটাই মনে করেন তিনি।

মঙ্গলবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুবাইয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘হারাতেই হবে পরিকল্পনা করে নামলে আসলে হয় না। একটা প্রসেসের মধ্যে থাকতে হয় আসলে। আফগানিস্তানকে ছোট করে দেখার কিছু নেই বা বড় করেও দেখার কিছু নেই। দিন শেষে আমাদের যা আছে, নিজেদের সাধ্য মতো দিয়ে চেষ্টা করবো। ব্যাটিং-বোলিংয়ের প্রসেসের মধ্যে করবো। আসলে প্রতিটা জিনিসই প্রসেসের মধ্যে থাকতে হবে। প্রসেসের বাইরে গেলে হবে না।’

‘আমরা সবাই মানসিকভাবে শক্ত আছি। প্রসেসের মধ্যে আছি। ইনশাআল্লাহ ভালো কিছু হবে। বাড়তি চাপ নিচ্ছি না আমরা।’

এদিকে এশিয়া কাপে শুভসূচনা করেছে আফগানরাও। লঙ্কানদের বিপক্ষে ৯১ রানের বড় জয় তুলে নিয়েছে দলটি। যেখানে ইতোমধ্যে ‘বি’ গ্রুপ থেকে সুপার ফোর নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৮
এমকেএম/এমএমএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache