[x]
[x]
ঢাকা, শনিবার, ৪ কার্তিক ১৪২৫, ২০ অক্টোবর ২০১৮
bangla news

ক্রিকেট বোর্ড নিজেদের অধীনে নিয়ে নিলো লঙ্কান সরকার

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৬-০১ ৬:১৯:৫২ এএম
শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল ছবি: সংগৃহীত

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডকে অস্থায়ীভাবে নিজেদের অধীনে নিয়ে নিয়েছে লঙ্কান সরকার। কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, দিনে দিনে লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড ‘প্রতিবন্ধী কর্তৃপক্ষ’ নিয়ন্ত্রণ করে ফেলেছে।

বর্তমান বোর্ড প্রধান থিলাঙ্গা সুমাথিপালার মেয়াদকাল শেষ হয়েছে ৩১ মে। এরপর থেকেই সরকারের অধীনে চলে গেছে বোর্ড।

সুমাথিপালার পরিবর্তে বোর্ডের পক্ষ থেকে যোগ্য কাউকে সামনে আনতে পারেনি। এমনকি নির্বাচন করতেও আগ্রহী দেখা যায়নি ক্রিকেট বোর্ডকে। মূলত বোর্ডের বিগত দিনের একাধিক অনৈতিক কর্মকাণ্ডের কারণে আদালতের পক্ষ থেকেই নির্বাচনের ওপর আস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। তাই কেউই নির্বাচন করায় আগ্রহী হয়নি।

অস্থায়ীভাবে সরকারের পক্ষ থেকে বোর্ডের দায়িত্বে থাকবেন শ্রীলংকার ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব কামাল পদ্মশ্রী। সরকারের এমন সিদ্ধান্ত ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) কিভাবে নেবে তা এখনো জানা যায়নি। তবে বোর্ডের ওপর সরকারের হস্তক্ষেপ সব সময়ই আইসিসির নীতিমালা বহির্ভূত। এর আগে ২০১৫ সালে যখন সরকারের পক্ষ থেকে অন্তর্বর্তীকালীন কমিটি দেওয়া হয়েছিল, সে সময়ও আইসিসি লঙ্কান বোর্ডের আর্থিক সাহায্য স্থগিত করে দিয়েছিল।

যদিও সুমাথিপালা সরকারের এই সিদ্ধান্তের জোর বিরোধিতা করে আরও কিছুদিন থেকে যেতে চেয়েছিলেন, কিন্তু সরকার পক্ষ তার সে প্রস্তাবে কোনো সাড়াই দেয়নি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সুমাথিপালা বলেন, সামনের ৪-৫ মাসে আমাদের দক্ষিণ আফ্রিকা সফর, এশিয়া কাপ (নারী) ও ইংল্যান্ড সিফির। এই সময়টা আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই সময়টা আমি দায়িত্ব নিতে চেয়েছিলাম। এর ওপর আইসিসি এটা সহ্য করবে না। এমনকি তারা আবারও আমাদের ফান্ড স্থগিত করে দেবে। যা আমাদের আর্থিক ক্ষতির মুখে ফেলবে।

তবে শ্রীলঙ্কার ক্রীড়ামন্ত্রী ফাইজার মুস্তফা জানিয়েছেন, ৩১ জুলাইয়ের মধ্যেই বোর্ডের নির্বাচন হবে। এরপরই হয়তো সরকার বোর্ডের হাতে আবার দায়িত্ব ফিরিয়ে দেবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০০ ঘণ্টা, জুন ১, ২০১৮

এমকেএম/এমজেএফ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache