[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ৪ কার্তিক ১৪২৫, ১৯ অক্টোবর ২০১৮
bangla news

রশিদ-মুজিব ভয়ে থরো থরো নন মাহমুদউল্লাহ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-১৭ ৬:১৩:৩১ এএম
মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ-ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ-ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: জুনে ভারতের দেরাদুনে আফগানিস্তান সিরিজের আগে বারবারই রশিদ খান ও মুজিব উর রহমানের প্রসঙ্গ উঠে আসছে। কেমন করবেন টাইগাররা? সম্মান নিয়ে দেশে ফিরতে পারবেন তো?

কারণটিও সঙ্গত। আইপিএলে বল হাতে এই দুই স্পিনার যেভাবে হুঙ্কার ছাড়ছেন তাতে তাদের নিয়ে এমন বিস্তর আলোচনা হওয়াটা দোষের কিছু নয়। বরং প্রাসঙ্গিক। কেননা দুজনই স্ব স্ব দলের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন। তাছাড়া রশিদ খান আইসিসি টি টোয়েন্টি বোলারদের মধ্যে শীর্ষে রয়েছেন।

১১ ম্যাচে ১৪ উইকেট নিয়ে বোলারদের মধ্যে ৭-এ কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব অফ স্পিনার মুজিব উর রহমান। তার চাইতে এক ম্যাচ বেশি খেলে ১৩ উইকেট নিয়ে ১২ নাম্বারে লেগি রশিদ খান।

মুশফিকুর রহিম তো রশিদ খানকে মোকাবেলা করতে বেশ উঠে পড়ে লেগেছেন। বাংলাদেশ দলের হয়ে এক সময়ে খেলা লেগ স্পিনার জুবায়ের হোসেন লিখনের বোর্লিংয়ের বিরুদ্ধে ঘণ্টার পর ঘণ্টা নেটে সময় কাটাচ্ছেন। মুজিব উর রহমানকে মোকাবেলাও সমান চ্যালেঞ্জিং হবে বলে সেদিন জানিয়েছেন।

তবে টাইগার মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে আফগানিস্তানের বোলিং আক্রমণের প্রশ্নে বেশ আত্মবিশ্বাসীই মনে হয়েছে। তাদের যাদুকরী স্পিন মোকাবেলায় তিনি তো বটেই সতীর্থ ব্যাটসম্যানরাও যথেষ্ঠই সমর্থ বলে মনে করছেন তিনি। ‘ওদের বোলিং অ্যাটাকের যে বৈচিত্র আছে, আমাদের ব্যাটিং ডেপথের ওই ক্যাপাবিলিটি আছে যে ওদের বোলারদের মোকাবেলা কর এবং সঠিকভাবে নিজেদের মেলে ধরা।’

কিন্তু তারপরেও সিরিজটিকে চ্যালেঞ্জিং মানছেন এই টাইগার মিডল অর্ডার। যেহেতু আইসিসি’র টি টোয়েন্টি ৠাংকিংয়ে বাংলাদেশের চাইতে দুই ধাপ এগিয়ে আফগানিস্তান। পাশাপশি মাথায় রাখছেন ক্রিকেটের চিরন্তন সত্যকে, ‘টি টোয়েন্টি ফরম্যাটে বড় দল ছোট দল বলতে কিছু নেই। নির্ধারিত দিনে আপনি যদি ভাল পারফর্ম করেন যে কাউকে হারাতে পারবেন। চ্যালেঞ্জিং একটা সিরিজ হবে। আপনি যদি ৠাংকিং দেখেন ওরা আটে আমরা দশে।’

একই সাথে এই সিরিজ দিয়েই নিজেদের ৠাংকিংয়ে উন্নতির দারুণ এক সুযোগ দেখছেন ‘মিস্টার কুল’ রিয়াদ। আর সেই লক্ষ্যে তাকে অভয় দিচ্ছে দলের বৈচিত্রময় বোলিং ইউনিট এবং নিদাহাস ট্রফির পারফরম্যান্স, ‘আমাদের বোলিং বিভাগও ভাল করছে। সাকিব আছে, অপু আছে (নাজমুল ইসলাম অপু), মিরাজ (মেহেদি হাসান) আছে, আমাদের বোলিংয়েও ভ্যারাইটি আছে। যদি বোলিং স্ট্রেংথের কথা বলেন, ওদের স্ট্রেংথ আমাদের স্ট্রেংথ ভিন্ন। ওইটা নিয়ে বরঞ্চ মাথা না ঘামিয়ে আমরা আমাদের স্ট্রেংথগুলোর দিকে ফোকাস করে যেন যেভাবে নিদাহাস ট্রফিতে ক্যালকুলেটিভ রিস্ক নিয়ে খেলেছি সেই জিনিসগুলো যদি অ্যাপ্লাই করতে পারি তাহলে ইতিবাচক ফলাফল আশা করতে পারি। আমার মনে হয় আমাদের জন্য ভাল একটা সুযোগ।’

স্বাগতিক আফগানিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের টি টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে ২৯ মে ভারতের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়বে সাকিব আল হাসান ও তার দল। সিরিজের সূচি অনুযায়ী ৩, ৫ ও ৭ জুন দেরাদুনের রাজীব গান্ধি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচ তিনটিতে টাইগাররা আফগানদের মোকাবেলা করবে।

প্রতিটি ম্যাচই শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮ টায়।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৩ ঘণ্টা, ১৭ মে, ২০১৮
এইচএল/এমএমএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache