[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১৮ নভেম্বর ২০১৮
bangla news

এমন আগে দেখেননি রাজ্জাক

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০২-০৮ ৮:১০:৪০ এএম
আব্দুর রাজ্জাক-ছবি- শোয়ের মিথুন

আব্দুর রাজ্জাক-ছবি- শোয়ের মিথুন

ঢাকা: শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ঢাকায় চলমান টেস্ট ম্যাচের ঠিক চার বছর আগে অর্থাৎ ২০১৪ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি এ দলটির বিপক্ষেই শেষ টেস্ট ম্যাচটি খেলেছিলেন আব্দুর রাজ্জাক। সাদা পোশাকে ২০০৬ সালে অভিষিক্ত এ বাঁহাতি স্পিনারের ওই পর্যন্ত ম্যাচ খেলা হয়েছিলো সাকুল্যে ১২টি। সে সময়ের উইকেট এখনকার মতো স্পিনবান্ধব হতো না।

কিন্তু ২০১৬ সালের ইংল্যান্ড সিরিজে বাংলাদেশের উইকেটের হালচাল বদলে গেলো। ওই বছর থেকেই ঘরের মাঠের সুবিধা আদায়ের লক্ষ্যে নিজেদের মতো করে উইকেট প্রস্তুত শুরু করলো বাংলাদেশ। তাতে কাজও হলো বিস্তর। স্পিন উইকেট শতভাগ কাজে লাগিয়ে প্রথমবারের মতো ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তুলে নিলো টেস্ট জয়।

স্পিন উইকেটের সেই ধারাবাহিকতা গত বছরের অস্ট্রেলিয়া সিরিজেও বজায় থাকলো। যা কি-না ক্রিকেটে সবসময়ের শক্তিশালী দলটির বিপক্ষে প্রথম জয় এনে দিলো মুশফিক শিবিরকে।

কিন্তু স্পিন‘রাজ’ রাজ্জাক তখন দলে না থাকায় এমন উইকেটে খেলার সৌভাগ্য তার হয়নি। অবশেষে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চলমান সিরিজ দিয়েই তা হলো। ফলে বিষয়টি তার কাছে প্রথমই। যা তাকে এক রোমাঞ্চ অনুভূতি পাইয়ে দিয়েছে। ‘এ ধরনের উইকেটে প্রথম খেললাম। আগে নিজেদের শক্তি দেখেশুনে খেলার সুযোগ ছিলো না। এখন এটা সামনের দিকে যাবে। সেটারই ফল।’

বৃহস্পতিবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা টেস্টের প্রথম দিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসে একথা বলেন রাজ্জাক।

রাজ্জাক এসময় কথা বলেন প্রথম দিন শেষে দলের সামগ্রিক অবস্থা নিয়েও। লাকমলের পেস তোপ ও দিলরুয়ান পেরেরার ঘূর্ণিতে দিনের শেষ সেশনে ৫৬ রানে ৪ উইকেট হারিয়েছে স্বাগতিক শিবির। প্রথম ইনিংসে এখনও ১৬৬ রানে এগিয়ে সফরকারীরা। কিন্তু আশার কথার হলো এমন পরিস্থিতির পরেও নিজ দলের আশু বিনাশ দেখছেন না এই সিনিয়র টাইগার। ভরসা রাখছেন ব্যাটসম্যানদের ওপর।

‘একটা সেশনে একেক টাইপের খেলা হয়। দেখা যায় একটা সেশনে একটা দল এগিয়ে আছে, পরের সেশনে আবার অন্য দল। টেস্টে ক্ষতিপূরণ করে দেওয়ার জায়গা থাকে। আমার মনে হয় আমাদের দুইটা  উইকেট বেশি পড়ে গেছে। এটা সহজেই পুষিয়ে দেওয়া সম্ভব।’

বাংলাদেশ সময়: ১৯১০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০১৮
এইচএল/জেডএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db