bangla news

কলকাতার হার

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১১-০৯-২৫ ১০:৪৫:৫৩ পিএম

খেলাটা একপেশে হওয়ার যোগার। ব্যাটিং তান্ডবে হুহু করে রান উঠছিলোর সমারসেটের। কলকাতার বোলাররা জানপ্রাণ দিয়ে রান চেক দেওয়ার চেষ্টা করেও মারখাচ্ছিলেন। সেখান থেকেও ম্যাচ গড়ায় শেষ ওভার পর্যন্ত। দুই বল আগে পাঁচ উইকেটের জয় নিশ্চত হয় সামারসেটের।

হায়দ্রাবাদ: খেলাটা একপেশে হওয়ার যোগার। ব্যাটিং তান্ডবে হুহু করে রান উঠছিলোর সমারসেটের। কলকাতার বোলাররা জানপ্রাণ দিয়ে রান চেক দেওয়ার চেষ্টা করেও মারখাচ্ছিলেন। সেখান থেকেও ম্যাচ গড়ায় শেষ ওভার পর্যন্ত। দুই বল আগে পাঁচ উইকেটের জয় নিশ্চত হয় সমারসেটের।

কলকাতা নাইটরাইডার্স: ১৬১/৩ (২০ ওভার)

সমারসেট: ১৬৪/৫ (১৯.৪ ওভার)

ফল: সামারসেট ৫ উইকেটে জয়ী

কলকাতা কিন্তু জয় পাওয়ার মতো ইনিংস খেলেছে। জ্যাক ক্যালিসের অপরাজিত ৭৪, মনজ তিওয়ারি ২০ ও ইউসুফ পাঠানের হার না মানা ৩৯ রানের ইনিংস তিনটি কলকাতা নাইটরাইডার্সকে তিন উইকেটে ১৬১ রানের সংগ্রহ এনে দেয়। ক্যালিস ও পাঠানের জুটি থেকে আসে ৯০ রান।

ব্যাটিংয়ে নেমে তান্ডব চালায় সমারসেট। সাকিব আল হাসান, ক্যালিস, ব্রেট লিকে তুলোধুনো করে দ্রুত রান তুলতে থাকে। দলের ১৫ রানে প্রথম উইকেট হারালেও দ্বিতীয় জুটিতে বড় রান আসে। ভ্যান ডার মারউ ও ত্রেগোর জুটিতে ১০৫ রান করে। এই দুজনকে সাকিব কুপোকাত করলে রানের গতি মন্থর হয়। মারউ ৭৩, ত্রেগো ২৮ রান করেন।

রানের গতি কমাতে পারলেও সমারসেটের জয় থামাতে পারেনি কলকাতা নাইটরাইডার্স।

এদিকে বি গ্রুপের আরেক খেলায় দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়াকে ৫০ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে ওয়ারিয়র্স।

বাংলাদেশ সময়: ০৮৩০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১১ 

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2011-09-25 22:45:53