ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ আষাঢ় ১৪২৬, ২০ জুন ২০১৯
bangla news

হকি ফেডারেশন কর্মকর্তাদের ছেলেখেলা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-০৭-২৪ ১২:১৪:৪৯ এএম

আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচ শেষ। প্লে-অফ ম্যাচ দেখার স্বপ্ন নিয়ে বাড়ি ফেরেন সমর্থকরা। হকি ফেডারেশন থেকেও সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয় লিগের ...

ঢাকা: আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচ শেষ। প্লে-অফ ম্যাচ দেখার স্বপ্ন নিয়ে বাড়ি ফেরেন সমর্থকরা। হকি ফেডারেশন থেকেও সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয় লিগের বাইলজ মেনে শিরোপা নির্ধারণের জন্য আবাহনী-মোহামেডানের মধ্যে প্লে অফ ম্যাচ হবে।

সূর্য ডোবার পরই অন্ধকারে বসে আবাহনী-মোহামেডান কর্মকর্তাদের সঙ্গে মিলে লিগ কমিটির কর্মকর্তারা নতুন এক নাটকের জন্ম দেন। কিছুক্ষণ পরেই ঘোষণা আসে আবাহনী-মোহামেডান যুগ্মভাবে লিগ চ্যাম্পিয়ন। বাইলজ বলে কোন শব্দের অস্তিত্ব থাকলো না। কাব কর্মকর্তাদের কাছে হেরে গেলো একটি জাতীয় ফেডারেশন।

লিগের বাইলজে ছিলো, দুই দলের পয়েন্ট সমান হলে শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচ হবে। অর্থাৎ অতিরিক্ত একটি ম্যাচ খেলতে হবে উভয় দলকে। সেখানে অবশ্যই ফলাফল আসতে হবে। প্লে-অফ ম্যাচের নির্ধারিত ৭০ মিনিটে জয়-পরাজয় না হলে গোল্ডেন গোলে নিষ্পত্তির বিধান ছিলো। সেখানেও চূড়ান্ত সমাধান না পেলে টাইব্রেকারে ম্যাচের নিষ্পত্তি আনবে লিগ কমিটি।

নিয়মের তোয়াক্কা না করে, নতুন নিয়মের জন্ম দিলো বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের লিগ কমিটি। প্লে-অফ ম্যাচ না দিয়ে লিগ কমিটির সম্পাদক আনভির আদেল স্ট্রোক শট নিলেন।

রাতের আধারে নিয়ম বদলানোর কারণ জানতে আনভির আদেলের সঙ্গে যোগাযোগ করে পাওয়া যায়নি। নতুন সিদ্ধান্ত বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানোর পর থেকেই সেল ফোনে বন্ধ করে রেখেছেন হকি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক জামিল খন্দকার। এমনকি ছোট বড় কোন কর্মকর্তাকেই পাওয়া যায়নি।

আবাহনীর হকি কমিটির যুগ্ম সম্পাদক শহীদুল ইসলাম দোলন বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে বলেন,“বিদেশি আম্পায়ার থাকবে না এমন অজুহাত এনে যুগ্ম-চ্যাম্পিয়ন ঘোষণার প্রস্তাব দেন লিগ কমিটির সম্পাদক আনভির আদেল। মোহামেডান প্রস্তাবে রাজি হয়। তাই আমরাও রাজি হয়ে যাই।”

মোহামেডান এসসির হকি সম্পাদক সাজেদ আদেল জানিয়েছেন উল্টোটাই। আবাহনীর দিক থেকে প্রস্তাব আসায় তারা মেনে নিয়েছেন। সাজেদ আদেল বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে বলেন,“আমাদের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছে কবে প্লে অফ ম্যাচ খেলতে চাই। আমি জানিয়েছি রোববার। কিন্তু লিগ কমিটি বলেছে বিদেশি আম্পায়ার না থাকায় তারা ম্যাচ আয়োজন করতে পারবে না। এরপরই আবাহনীর কর্মকর্তা আমাদেরকে যুগ্ম-চ্যাম্পিয়ন মেনে নেওয়ার প্রস্তাব দেয়। আমরা রাজি হয়ে যাই।”

এদিকে হকি ফেডারেশনের যুগ্ম-সম্পাদক রশিদ শিকদার বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে জানান, জাতীয় দুর্যোগ বা দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি ছাড়া এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া যায় না। আমরা যখন ফেডারেশন ছেড়েছি তখন জানানো হয়েছে প্লে অফ ম্যাচ হবে। এমন তো হওয়ার কথা ছিলো না।”
 
বাংলাদেশ সময়: ২১১৫ ঘন্টা, জুলাই ২৪, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2010-07-24 00:14:49