bangla news

জিততে হলে আক্রমণাত্মক হতে হবে: লতিফ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১১-০৩-২৬ ৯:৪২:২৮ এএম

পাকিস্তান- ভারতের মুখোমুখিকে কেন্দ্র করে বিশ্বকাপের সেফিফাইনালেই আঁচ লাগছে ফাইনালের। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুটি দলই জয়ের ছক কষছে। তবে পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক রশিদ লতিফের মতে, যারা প্রতিপক্ষকে বেশি আক্রমণ করে খেলবে তাদের দিকেই ভারী থাকবে জয়ের পাল্লা ।

করাচি: পাকিস্তান- ভারতের মুখোমুখিকে কেন্দ্র করে বিশ্বকাপের সেফিফাইনালেই আঁচ লাগছে ফাইনালের। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুটি দলই জয়ের ছক কষছে। তবে পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক রশিদ লতিফের মতে, যারা প্রতিপক্ষকে বেশি আক্রমণ করে খেলবে তাদের দিকেই ভারী থাকবে জয়ের পাল্লা ।

সাবেক এই অধিনায়ক হাইভোল্টেজ সেমিফাইনাল ম্যাচটিতে অবশ্য ভারতকেই এগিয়ে রাখছেন। বলেন,“কোন সন্দেহ নেই যে ভারতের মাটিতে তারাই ফেভারিট। কিন্তু বিশ্বকাপে দল হিসেবে অসাধারণ পাকিস্তান। একদেহ একপ্রাণ হয়ে লড়ছে তারা। সুতরাং তারাই শেষ পর্যন্ত জয় তুলে নেবে যারা বেশি আক্রমণাত্মক খেলবে।”

একই সঙ্গে পাকিস্তান টিম ম্যানেজমেন্টের উদ্দেশ্যে একটি আবেদন রেখেছেন সাবেক এই অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক। ভারতের বিপক্ষে লড়াইয়ে শোয়েব আখতারকে দলে দেখতে চান তিনি। কারণ চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের বিপক্ষে পাকিস্তানকে জয়ী দেখতে চান।

ভারতের বিপক্ষে বিশ্বকাপে হারের যন্ত্রণা কি জিনিস সেটা ভালো ভাবেই টের পাচ্ছেন পাকিস্তান বিশ্বকাপ দলের সদস্য রশিদ। ১৯৯৬’র বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের কাছে হেরে প্রতিযোগিতা থেকে বিদায় নেয় পাকিস্তান। তিনি বলেন,“চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের (ভারত) কাছে হারাটা সবসময়েই যন্ত্রণাদায়ক। আমি ওই ম্যাচে খেলার অংশ ছিলাম এবং এখনো পীড়া অনুভব করি।”

বেঙ্গালুরুতে ১৯৯৬ সালের বিশ্বকাপ কোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের কাছে ৩৯ রানে হেরে যায় পাকিস্তান।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৭ ঘণ্টা, মার্চ ২৬, ২০১১

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2011-03-26 09:42:28