bangla news

প্রথম শটে ভয় ছিল দুই ডাচ ফুটবলারেরই!

1807 |
আপডেট: ২০১৪-০৭-১০ ৭:৪৮:০০ এএম

শুট আউটে দুই শট মিস করে বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল থেকেই বিদায় নিয়েছে নেদারল্যান্ডস। প্রথম ও তৃতীয় পেনাল্টি মিস করে দলের জয়রথ থামিয়ে দিয়েছেন রন ভ্লার ও ওয়েসলি স্নেইডার।

ঢাকা: শুট আউটে দুই শট মিস করে বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল থেকেই বিদায় নিয়েছে নেদারল্যান্ডস। প্রথম ও তৃতীয় পেনাল্টি মিস করে দলের জয়রথ থামিয়ে দিয়েছেন রন ভ্লার ও ওয়েসলি স্নেইডার।

এই পরাজয়ের পর বেরিয়ে আসছে গতবারের রানারআপদের ভেতরের খবর। কোচ লুই ফন গালই বলছেন, পেনাল্টি শট নিয়ে খানিকটা ‘পিছুটান’ খেলা হয়েছে নেদারল্যান্ডস দলে।

ফন গাল বলেন, আমি দু’জনকে প্রথম পেনাল্টি নিতে বলেছিলাম। তারা রাজি না হওয়ায় তাকে (রন ভ্লার) দিয়ে শট করানো হয়।

কোচ হতাশা প্রকাশ করে বলেন, আমি মনে করেছিলাম পিচটি তার পরিচিত। সে ভালো খেলোয়াড়। তার মধ্যে আত্মবিশ্বাস ছিল। পেনাল্টিতে হার ছিল সবচেয়ে বেদনাদায়ক।

তবে প্রথম শট নিতে ভয় পেয়ে সরে যাওয়া ওই দু’জন খেলোয়াড়ের নাম জানা যায়নি।

বুধবার রাতে সাও পাওলোতে সেমির লড়াইয়ে আর্জেন্টিনার কাছে হেরে শিরোপার স্বপ্ন ভেঙে যায় ডাচদের। আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক সার্জিও রোমেরো ডাচদের প্রথম ও তৃতীয় শট আটকে দিয়ে দলকে দুই যুগ পর ফাইনালে নিয়ে যেতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন।

খেলার নির্ধারিত ৯০ মিনিট ও অতিরিক্ত ৩০ মিনিট গোলশূন্য শেষ হলে পোনাল্টিতে গড়ায় ম্যাচ।

ডাচদের পক্ষে প্রথম পেনাল্টি করতে আসেন ডিফেন্ডার রন ভ্লার। তার এ শট আটকে দিয়ে প্রথমেই দলের খেলোয়াড়দের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দেন আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক সার্জিও রোমেরো। ব্যস, তারপরের গল্প তো সবার জানা।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৮ ঘণ্টা, জুলাই ১০, ২০১৪

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2014-07-10 07:48:00