bangla news

পরিচিত কন্ডিশনে বলেই আত্মবিশ্বাসী মালিঙ্গা

256 |
আপডেট: ২০১৪-০৪-০৫ ৮:২৫:০০ এএম
লাথিস মালিঙ্গা ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

লাথিস মালিঙ্গা ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বড় কোনো আসরে ফাইনাল মানে শ্রীলঙ্কা, কথাটা খুব বেশি বাড়াবাড়ি মনে হতেই পারে। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কিছু আসরে শ্রীলঙ্কা দলের ফাইনাল বিচরণ চোখে পড়ার মত।

মিরপুর শেরে-ই বাংলা স্টেডিয়াম থেকে: বড় কোনো আসরে ফাইনাল মানে শ্রীলঙ্কা, কথাটা খুব বেশি বাড়াবাড়ি মনে হতেই পারে। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কিছু আসরে শ্রীলঙ্কা দলের ফাইনাল বিচরণ চোখে পড়ার মত। তবে ট্রফি ঘরে তোলার ভাগ্য খানিকটা খারাপ মাহেলা-সাঙ্গাকারা-মেন্ডিসদের। তবে এই বাংলাদেশেই কিছুদিন আগে হয়ে যাওয়া সর্বশেষ আসরে এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট বাড়তি প্রেরণা হয়ে দাঁড়াবে টি-টোয়েন্টির ফাইনালে।

আইসিসি ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টির বিশ্ব আসরের সবচেয়ে বড় মঞ্চে অবস্থান করছে শ্রীলঙ্কা। আর এক ম্যাচ জিতলেই শিরোপা হাতে ওঠাবে তারা। ফাইনাল ম্যাচের বড় বাধা টপকাতে হলে পঞ্চম আসরের এখন পর্যন্ত অপরাজিত দল ভারতকে হারাতে হবে। টুর্নামেন্টের ভারতের বোলার আর ব্যাটসম্যানদের দুর্দান্ত পারফরম্যান্স কঠিন সমীকরণেরই ইঙ্গিত বহন করে শ্রীলঙ্কার জন্য। শিরোপা জয়ের আশায় মাঠে মানছে সেই কথা বেশ ভালই বুঝিয়ে দিলেন মালিঙ্গা।

বিশ্বকাপের পারফরম্যান্সের বিচারে ভারত খানিকটা এগিয়ে থাকলেও শ্রীলঙ্কার দলীয় পারফরম্যান্স চোখে পড়ার মত। দলের প্রয়োজনে মালিঙ্গারা যে কোনো দিন যে কেউ জ্বলে উঠতে পারে। তবে ধোনির দলের স্পিনারদের সঙ্গে শ্রীলঙ্কার স্পিনারদের কিছুটা পার্থক্য চোখে পড়েছে টুর্নামেন্টে। কোহলির সঙ্গে মালিঙ্গার লড়াইও ভালোই হবে বোঝা যায়।

ফাইনাল ম্যাচের আগে জনাকীর্ণ প্রেস কনফারেন্সে লাথিস মালিঙ্গা চ্যাম্পিয়ন হওয়ারই ইঙ্গিত দিলেন। বাংলাদেশের মাটিতেই খেলাটা হচ্ছে বলে বাড়তি আত্মবিশ্বাস এই পেসারের কণ্ঠে। বাংলাদেশের মাটিতে বাড়তি সুবিধার কথাও জানালেন সাংবাদিকদের। কারণটা স্পষ্ট, শেষ একমাস এই দেশেই শ্রীলঙ্কা খেলছে এবং জয়ের ধারাবাহিকতার মধ্যেই রয়েছে। কন্ডিশনটাও বেশ মানিয়ে নিয়েছে এতদিনে।

ফাইনাল ভাগ্য কখনই ভাল না, ভারতের বিপক্ষে তাদের রেকর্ড সেই কথাই বলে- এমন এক প্রশ্নে সাংবাদিকদের বলেন, এদিন নতুন একটি ম্যাচ খেলা হবে। ভিন্ন একটি ফাইনালের মুখোমুখি হতে যাচ্ছি। আমরা নতুন সব পরিকল্পনা মাথায় নিয়েই মাঠে নামব। অবশ্যই আমরা জেতার জন্য খেলব। আগের স্মৃতি এখানে কাজ করার সুযোগ দেখি না।

সুপার টেনের ম্যাচগুলো চট্টগ্রামে, আর ফাইনাল ঢাকায়। কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে খুব অসুবিধা হবে না। আমরা সুপার টেনের ম্যাচগুলো চট্টগ্রামে খেলেছি। তবে এখানেও আমাদের পরিচিত কন্ডিশন। মিরপুরে আমাদের ভালো কিছু স্মৃতি রয়েছে। হয়তো স্পিনাররা বেশি সুবিধা পাবে। আমাদের দল সব কিছুর জন্য প্রস্তুত। টুর্নামেন্টে ভারতের স্পিনারদের ভালো বল করতে দেখেছি। যেকোনো বল খেলতে পারবে আমাদের ব্যাটসম্যানরা।

চান্দিমাল দলে নেই, তবে ফাইনালে দলে আসতেও পারে। সে ফাইনালে এলেও দলের নেতৃত্ব এই পেসারের হাতেই থাকবে।

কোহলির সঙ্গে মালিঙ্গার লড়াই কেমন জমবে এমন প্রশ্নের জবাবে মালিঙ্গা জানালেন, কোহলি পুরো টুর্নামেন্টেই ভালো ফর্মে রয়েছে। আমি অবশ্যই উইকেট পেতে চাই তবে কোনো একক খেলোয়াড় আমার প্রতিপক্ষ নয়। ভারতের বড় ব্যাটিং লাইন আপ। ছয়-সাত জন ম্যাচ ঘুরিয়ে দেওয়ার সামর্থ রাখে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৫, ২০১৪

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2014-04-05 08:25:00