ঢাকা, সোমবার, ২২ মাঘ ১৪২৯, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৪ রজব ১৪৪৪

খেলা

আর্থিক সংকট, শুটিং বিশ্বকাপ খেলতে গেল শুধু নারী দল

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২৩
আর্থিক সংকট, শুটিং বিশ্বকাপ খেলতে গেল শুধু নারী দল

অর্থ সংকটে শেষ মুহূর্তে ছোট হয়ে গেল শুটিং বিশ্বকাপের বাংলাদেশ দল। পুরুষ ও নারী শুটার মিলিয়ে আট জন অংশ নেওয়ার কথা থাকলেও রাতে জাকার্তা গেছেন রাইফেলের চার নারী শুটার।

ফলে তিন ইভেন্টে অংশ নেওয়া হচ্ছে না পুরুষ দলের।  

শুটিংয়ে মেয়েদের স্কোর গত কয়েক আসর ধরেই ঊর্ধ্বমুখী। ছেলে ও মেয়ে মিলিয়ে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় এই মুহূর্তে রেকর্ড স্কোর যেমন কামরুন্নাহার কলির। গত বছর শুটিংয়ে যে দুটি পদক এসেছে তা-ও মেয়েদের হাত ধরে। তবে ২৭ জানুয়ারি ইন্দোনেশিয়ায় শুরু হতে যাওয়া শুটিং বিশ্বকাপে বাংলাদেশ থেকে যে শুধু মেয়েদের দলই যাচ্ছে, তার কারণ পারফরম্যান্স নয়। খরচ কমানোর নীতিতেই কাটা পড়েছেন ১০ মিটার এয়ার রাইফেলের দুই পুরুষ শুটার রাব্বি হাসান ও রবিউল ইসলাম।

ফেডারেশনের যুগ্ম সম্পাদক মোস্তাক ওয়াইজ বলেন, ‘আন্তর্জাতিক আসরগুলোতে বাহিনী ও সংস্থার খেলোয়াড়দের জন্য তাদের সেই দল থেকেই সাধারণত আর্থিক পৃষ্ঠপোষণা নিয়ে থাকে ফেডারেশন। নৌবাহিনীতে খেলা রাব্বি ও রবিউলের বিশ্বকাপে যাওয়া হচ্ছে না, কারণ তাদের বাহিনী কৃচ্ছ সাধন নীতি মেনে এই টুর্নামেন্টের জন্য পৃষ্ঠপোষণা করতে রাজি হয়নি। চারজন মেয়ের মধ্যে একজনের খরচ দিচ্ছে সেনাবাহিনী। বিকেএসপি দিচ্ছে তাদের একজনকে। চট্টগ্রাম ক্লাবের একজন। কলি (কামরুন্নাহার কলি) নৌবাহিনীর চুক্তিভিত্তিক খেলোয়াড়। ওর খরচের কিছুটা ফেডারেশন দিচ্ছে। ’

কথা ছিল বাংলাদেশ থেকে ৮ শুটার অংশ নেবেন জাকার্তা ওয়ার্ল্ড কাপে। এন্ট্রি লিস্টে এখনও তাদের নাম আছে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত জাকার্তায় বাংলাদেশের প্রতিনিধি ৪ নারী শুটার, সঙ্গে ইরানিয়ান কোচ জায়ের রেজাই এবং একজন দেশি কোচ কাম ম্যানেজার।

শুটার কমে যাওয়ায় শুধু নারী একক আর দলগত ইভেন্টে থাকছে লাল-সবুজের অংশগ্রহণ। সবকিছুর মূলে অর্থ সংকট। জাকার্তায় শায়রা, সাজিদা, কলি এবং নাফিসা নামবেন ১০ মিটার রেঞ্জে। পিস্তলে আন্তর্জাতিক আসরের মানসম্মত শুটার না থাকায় আগে থেকেই এই ইভেন্টকে বিবেচনায় রাখেনি ফেডারেশন।

শুটিং স্পোর্ট ফেডারেশনের মহাসচিব ইন্তেখাবুল হামিদ বলেন, ‘ছেলেদের টিমটা যেতে পারলেও ভালো হতো। আমাদের আর্থিক অবস্থা ভালো না তাই তারা যেতে পারছে না। তবে শুটিংকে সহযোগিতা করতে হবে। এই সহযোগিতা মানেই হলো আমাদেরকে গেম খেলার সুযোগ করে দিতে হবে বিদেশে। ’

বাংলাদেশ কোচ জায়ের রেজাই বলেন, ‘যারা যাচ্ছে তাদের ওপর আস্থা রাখা যায়। অনুশীলনে তারা ভালো করছে, তবে ভালোর শেষ নেই। আমরা যখন পদকের জন্য কোথাও যাই, সেখানে অন্য দেশগুলোও পদকের লক্ষ্যে প্রস্তুতি নিয়ে আসে। ’

তবে আর্থিক সংকটের মধ্যেও সাহসী উদ্যোগ নিতে যাচ্ছে ফেডারেশন। চলতি বছরেই ৫ দল নিয়ে ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ করার লক্ষ্য। দেশি-বিদেশি শুটাররা অংশ নেবেন। একেকটি ফ্যাঞ্চাইজির থাকবে রাইফেল ও পিস্তলের আলাদা দল। অতিথি হয়ে আসবেন অলিম্পিকজয়ী ভারতের তারকা শুটার অভিনব বিন্দ্রা।

শুটিং স্পোর্ট ফেডারেশনের মহাসচিব ইন্তেখাবুল হামিদ বলেন, অলিম্পিকের গোল্ড মেডেলিস্ট বিন্দ্রা। তিনি আমাদের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আসার জন্য রাজি হয়েছেন। এরকম কয়েকজন ফেমাস খেলোয়াড় আমরা আনবো। বিদেশি খেলোয়াড়ররাও এ লিগে খেলবে। এখানে ভারত, কোরিয়া, ইরানের দলের কিছু খেলোয়াড় খেলবে। এমন করে আমরা লিগটাকে পপুলার করার চেষ্টা করছি।

বাংলাদশ সময়: ১৭২৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২৩
এআর/এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa