bangla news

ময়মনসিংহে বছরজুড়ে আলোচনায় স্থানীয় নেতারা

23 |
আপডেট: ২০১৩-১২-৩১ ১০:৪২:৩৯ এএম
ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঘটনাবহুল ২০১৩ ময়মনসিংহের জন্য ছিল অত্যন্ত গুরুত্বপুর্ণ। বিদায়ী বছরে রাজনৈতিক উত্তাপ ও সহিংসতা ছাপিয়ে প্রধান দুই দলের বেশ কয়েকজন নেতা নানা কারণে ছিলেন আলোচিত-সমালোচিত।

ময়মনসিংহ: ঘটনাবহুল ২০১৩ ময়মনসিংহের জন্য ছিল অত্যন্ত গুরুত্বপুর্ণ। বিদায়ী বছরে রাজনৈতিক উত্তাপ ও সহিংসতা ছাপিয়ে প্রধান দুই দলের বেশ কয়েকজন নেতা নানা কারণে ছিলেন আলোচিত-সমালোচিত।

সচিবালয়ে গিয়ে এক কর্মকর্তাকে গুলির হুমকির ঘটনায় ক্ষমতাসীন দলের এক সংসদ সদস্য চরমভাবে সমালোচিত হন। তেমনি সরকার বিরোধী আন্দোলনে গ্রেফতার হওয়া এক নেতার অনুসারীরা কয়েক লাখ পোষ্টার আর ৩ হাজার ডিজিটাল ব্যানার (প্যানাফ্ল্যাক্স) ছাপিয়ে রেকর্ডও করেন।

সচিবালয়ে সরকারি কর্মকর্তাকে গুলির হুমকি

জনরোষ দমনে পিস্তল উঁচিয়ে গুলি ছুঁড়ার ঘটনায় দেশব্যাপী সমালোচিত ও বিতর্কিত সরকার দলীয় সংসদ সদস্য ক্যাপ্টেন (অব.) গিয়াস উদ্দিন আহমেদ। বছরের শুরু দিকেই আবারো গুলি করার হুমকি দিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি করেন।
 
বিদায়ী বছরের ১৭ জানুয়ারি এ সংসদ সদস্য প্রত্যাশা মাফিক তদ্বির না হওয়ায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আফছারুল আমিনের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা ইউসুফ ও কম্পিউটার অপারেটর মাঈনুদ্দিন ভূইয়াকে গুলি করার হুমকি দেন।

এ ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই নিজে হত্যাকাণ্ডের শিকার হতে পারেন এমন আশঙ্কায় ২১ মার্চ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বরাবর জাতীয় সংসদের প্যাডে নিজের নিরাপত্তা চেয়ে ডিও লেটার দিয়ে পুনরায় আলোচিত হন। সর্বশেষ ময়মনসিংহ-১০-গফরগাঁও আসন থেকে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি দলীয় মনোনয়ন হারান।

সাবেক প্রতিমন্ত্রীর জেল

সাবেক জ্বালানী প্রতিমন্ত্রী ও ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভাপতি একেএম মোশাররফ হোসেন বিদায়ী বছরে ছিলেন আলোচিত-সমালোচিত। এ বছরেই একটি দুর্নীতি মামলায় তার এক বছরের সাজার রায় দেন হাইকোর্ট।

১৯৯১ সালের ২৯ জানুয়ারি মতিঝিল থানায় মোশাররফ হোসেনের বিরুদ্ধে অর্থ আতœসাতের অভিযোগে দুর্নীতির মামলা হয়। এ মামলায় ঢাকার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ-৪ আদালত ১৯৯২ সালের ২ জুলাই মোশাররফকে তিন বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং ৬ লাখ টাকা জরিমানা করেন। পরে ১০ অক্টোবর হাইকোর্ট নিম্ন আদালতের দেয়া ৩ বছরের সাজার পরিবর্তে তার বিরুদ্ধে এক বছরের সাজার রায় দেন।

মোশাররফ হোসেন ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভাপতি হলেও ১১ মে নিজের স্বাক্ষরিত একটি দলীয় প্যাডে সংগঠনের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি অধ্যাপক শফিকুল ইসলামকে সভাপতির দায়িত্ব দেন। এতে করে দলের মধ্যে শুরু হয় বিতর্ক। গুঞ্জণ শুরু হয় সাবেক প্রতিমন্ত্রীর রাজনীতিকে ইতি টানার বিষয়। কিন্তু পরবর্তীতে রাজনীতিতে নিজের বহাল থাকার বিষয়ে জানান সাবেক এ আমলা।

ডিজিটাল ব্যানার ও পোস্টারের রেকর্ড লিটন আকন্দের

সরকার বিরোধী আন্দোলন দমনে ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় যুবদল নেতা এনামুল হক আকন্দ লিটনকে  নভেম্বর মাসে গ্রেফতার করা হয়।

তার মুক্তির দাবিতে শহরের অলিগলি কিংবা রাজপথ সর্বত্রই বর্ণাঢ্য প্যানাফ্ল্যাক্স (ডিজিটাল ব্যানার) ও পোস্টার সাটিয়ে দেয় তার অনুসারী নেতা-কর্মী-সমর্থকরা। ওই সময় তার মুক্তির দাবিতে প্রায় ৩ হাজার প্যানা ফ্ল্যাক্স ও দুই লাখ পোস্টার ছাপানো হয়। ময়মনসিংহের রাজনীতিতে প্রচারণায় এটি একটি রেকর্ড বলে মনে করা হয়।   

এমপি রেজা আলীকে লক্ষ্য করে জুতা নিক্ষেপ

কুমিল্লার কসবার বাসিন্দা রেজা আলী নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ময়মনসিংহ-৭-ত্রিশাল আসনে আওয়ামী লীগের টিকিটে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

আওয়ামী লীগের সাবেক উপদেষ্টা মণ্ডলীর সাবেক এ সদস্যকে লক্ষ্য করে জুতা নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে বিদায়ী বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি। স্থানীয় নজরুল ডিগ্রি কলেজ মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের এক জনসভায় দলটির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের উপস্থিতিতে এ অবাক কাণ্ড ঘটান দলীয় সাবেক সংসদ সদস্য হাফেজ রুহুল আমিন মাদানী সমর্থকরা।

জনসভা মঞ্চে ওই সময় রেজা আলী তার নেতৃত্বে করা ত্রিশালের উন্নয়নের ধারাবাহিক চিত্র তুলে ধরছিলেন। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি দলীয় মনোনয়ন পেলেও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির সমঝোতায় তিনি নিজের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন।

এমপি প্রার্থী সেলভীর ৪ ভোট
 
ময়মনসিংহ ৩ গৌরীপুর আসন থেকে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আলী আহমেদ খান পাঠান সেলভী। কিন্তু তিনি দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হন। মনোনয়ন বঞ্চনার কয়েক দিনের মাথায় চলতি বছরের ৪ ডিসেম্বর স্থানীয় নুরুল আমিন খান উচ্চ বিদ্যালয়ের স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে সভাপতি পদে মাত্র ৪ ভোট পেয়ে হেরে যান। নিজ উপজেলা ছাপিয়ে ময়মনসিংহ শহরেও এ ঘটনাটি আলোচনা-সমালোচনার কেন্দ্রে ঠাঁই পায়।

বাংলাদেশ সময় ১৬২৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৩
সম্পাদনা: খুররম জামান, ডিপ্লোম্যাটিক অ্যাফেয়ার্স এডিটর।

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2013-12-31 10:42:39