ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ মে ২০২২, ২২ শাওয়াল ১৪৪৩

আগরতলা

মোদীর বক্তব্যের বিরোধীতা করলেন মানিক সরকার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২২
মোদীর বক্তব্যের বিরোধীতা করলেন মানিক সরকার রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও বিরোধী দলনেতা মানিক সরকার।

আগরতলা: ত্রিপুরার পূর্ণরাজ্য দিবসের অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দেওয়া বক্তব্যের বিরোধীতা করেছেন রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও বিরোধী দলনেতা মানিক সরকার।  

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) আগরতলায় এক সংবাদ সম্মেলন ডেকে মোদীর বক্তব্যের বিরোধীতা করেন তিনি।

 

শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) ত্রিপুরার পূর্ণরাজ্য দিবসের অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অংশ নিয়েছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ওই অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে ত্রিপুরার রাজন্য শাসনের অবসানের মধ্য দিয়ে ভারতের সঙ্গে সংযুক্তি এবং গণতন্ত্রে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার জন্য ত্রিপুরার রাজাদের প্রশংসা করেন মোদী। মোদীর এই বক্তব্যের বিরোধীতা করে রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী এবং বিরোধী দলনেতা মানিক সরকার বলেন, বাস্তব হচ্ছে সাধারণ মানুষের চাপে ত্রিপুরা ভারতভুক্ত হয়।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তার এই বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে জনগনের ভূমিকাকে ছোট করে দেখানোর চেষ্টা করেছেন। এভাবে যারা ইতিহাস বিকৃতির চেষ্টা করবে মানুষ তাদের ভুলে যাবেন এবং ইতিহাস স্বমহিমায় চলতে থাকবে।  

মানিক সরকার বলেন, পূর্ণরাজ্য দিবসের অনুষ্ঠানে সেদিন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও অংশ নিয়েছিলেন। তিনি বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেছেন, রাজন্য শাসনের পর রাজ্যের কোনো উন্নয়ন হয়নি, যা কিছু হয়েছে তা রাজন্য আমলে এবং বর্তমান সরকারের সময়ে। এই প্রসঙ্গে মানিক সরকারের পাল্টা প্রশ্ন- রাজ্যে ১০টি মহকুমা ছিল এখন ২৩টি হয়েছে, রাজ্যে তিনটি জেলা ছিল, এখন তা বেড়ে আটটি হয়েছে, এগুলো কার সময় হয়েছে? মানিক সরকার বলেন, ত্রিপুরা রাজ্যের মানুষের প্রয়োজনে যেসব পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন ছিল তার সবকটি নেওয়া হয়েছে।

পূর্ণরাজ্য দিবসের অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত সাহ ত্রিপুরা সরকারের আগামী ২৫ বছরের কর্মপরিকল্পনার রূপরেখা সম্বলিত একটি বই প্রকাশ করেন। এই প্রসঙ্গে মানিক সরকার বলেন, এই সরকার পাঁচ বছরের জন্য ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনের আগে বিজেপি সাধারণ মানুষের সুবিধা সম্বলিত ৩০০টি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, সরকারের প্রায় চার বছর হয়ে গেছে এগুলোর কতটুকু কাজ হয়েছে, এই বিষয় নিয়ে কোনো কথা নেই। আবার নতুন করে মানুষদের বিভ্রান্ত করতে এসব বলছেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি।  

সেই সঙ্গে মানিক সরকার আরও বলেন, তারা যদি মনে করে যে, মানুষ এই সব লোভনীয় কথায় আবার ভুলে যাবেন এবং তাদের প্ররোচনার ফাঁদে পা দেবেন, তবে ভুল করছেন। ঘরে ঘরে মানুষ প্রস্তুত হচ্ছে এবং এর পাল্টা জবাব দেবেন।  

বাংলাদেশ সময়: ১৭২১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২২
এসসিএন/এমআরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa