ঢাকা, রবিবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

সিলেটে পেট্রোল পাম্পগুলোতে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৩, ২০২০
সিলেটে পেট্রোল পাম্পগুলোতে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট

সিলেট: টানা ৯৬ ঘণ্টা ধর্মঘটের ফাঁদে পড়া সিলেটে আবারও আসছে অনির্দিষ্টকাল ধর্মঘট। এবার ৬ দফা দাবিতে ধর্মঘটে যাচ্ছে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলার্স, ডিস্ট্রিবিউটার্স এজেন্টস অ্যান্ড পেট্রোল পাম্প ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন।

 

পরিমাপে সহনীয় মাত্রার চেয়ে জ্বালানি কম দেওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৪টি পাম্পকে জরিমানা করায় ২৭ ডিসেম্বর (রোববার) থেকে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট আহ্বান করেছে সংগঠনটি।  

সংগঠনটির সিলেট বিভাগের সাধারণ সম্পাদক জুবায়ের আহমদ চৌধুরী ধর্মঘট আহ্বানের তথ্য জানিয়েছেন।

যে ছয় দাবিতে ধর্মঘট আহ্বান করা হয়েছে, সেগুলোর মধ্যে রয়েছে-জ্বালানি তেল বিপণন কোম্পানি কর্তৃক নিম্নমানের পেট্রোল সরবরাহ বন্ধ করা, আগের ন্যায় সিলেট গ্যাস ফিল্ডের উন্নত মানের পেট্রোল সরবরাহ করা, জ্বালানি তেলের মান নিয়ন্ত্রণ করার জন্য সিলেটের প্রত্যেক ডিপোতে জ্বালানি তেল টেস্টিং ল্যাব স্থাপন করতে হবে।   বিভিন্ন সরকারী সংস্থা কর্তৃক অন্যায় ও উদ্দেশ্যমূলক হয়রানি আচরণ বন্ধ করতে হবে। অভিযানকারী ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর সিলেটের সহকারী পরিচালক আমিরুল মাসুদের অপসারণ, অভিযানে গেলে অ্যাসোসিয়েশনকে অবহিত করা ও তাদের মনোনীত প্রতিনিধি সঙ্গে নেওয়া ও তেল বিপণন কোম্পানির প্রতিনিধির উপস্থিতি নিশ্চিত করতে হবে। সরকারি অধিদপ্তর কর্তৃক প্রদত্ত লাইসেন্সসমূহ নবায়ন সহজ করতে হবে।

সংগঠনটির মহাসচিব জুবায়ের আহমদ চৌধুরী বলেন, সিলেটের কৈলাশটিলা গ্যাস ফিল্ডের উৎপাদিত তেল আমরা বিক্রি করে আসছিলাম। গত কয়েকমাস থেকে সিলেটের পাম্পগুলোতে গ্যাস ফিল্ডের তেল দেওয়া হচ্ছে না। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের নিম্নমানের তেল সরবরাহ করা হচ্ছে। যে কারণেই ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর পাম্পগুলোতে জরিমানা করছে। আমাদের দাবি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি বাতিল করে আগের ন্যায় সিলেট গ্যাস ফিল্ডের উৎপাদিত তেল সরবরাহ করা হোক।

তাছাড়া ভোক্তা অধিকারের কর্মকর্তা ২ ঘণ্টায় ১০টি পাম্প কি করে পরিদর্শন করলেন, এ নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি।  

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর সিলেটের সহকারী পরিচালক আমিরুল মাসুদ বাংলানিউজকে বলেন, গত সোমবার র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৯, বিএসটিআইর সমন্বয়ে ১০টি পাম্পে অভিযান চালানো হয়। অভিযানকালে পরিমাপে সহনীয় পর্যায়ের চেয়েও কম দেওয়ায় ৪টি পেট্রোল পাম্পকে সাড়ে ৩ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এই জরিমানার পরই আমার অপসারণসহ অন্য দাবি দাওয়া যুক্ত করে ধর্মঘটের ডাক দেই।

পাথর কোয়ারি খুলে দেওয়ার দাবিতে মঙ্গলবার (২২ ডিসেম্বর) থেকে সিলেট বিভাগীয় ট্রাক-পিকআপ-কাভার্ডভ্যান মালিক ঐক্য পরিষদের ডাকা ৭২ ঘণ্টা ধর্মঘটের দ্বিতীয় দিন অতিবাহিত হচ্ছে বুধবার।

এর আগে গত সোমবার ৫ দফা দাবিতে ৪৮ ঘণ্টা ধর্মঘট পালন করে সিএনজি অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৩, ২০২০
এনইউ/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa