ঢাকা, শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৮ মে ২০২৪, ০৯ জিলকদ ১৪৪৫

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির প্রক্রিয়া গণশত্রুতার শামিল

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৬২৪ ঘণ্টা, নভেম্বর ২, ২০১৭
বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির প্রক্রিয়া গণশত্রুতার শামিল বিদ্যুতের দাম নিয়ে আলোচনা সভায় বক্তারা- ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: কৃত্রিম ঘাটতি দেখিয়ে বিদ্যুতের দামবৃদ্ধির প্রক্রিয়া চলছে। দাম বৃদ্ধির প্রক্রিয়া গণশত্রুতার শামিল। দাম বাড়ানো নয়, ২৮.৫ পয়সা কমানো সম্ভব বলে মন্তব্য করেন ক্যাবের জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা অধ্যাপক শামসুল আলম।

বৃহস্পতিবার (২ নভেম্বর) বিদ্যুৎ ভবনে ক্যাব আয়োজিত বিদ্যুতের দাম কমানোর ওপর এক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

শামসুল আলম বলেন, আমরা হিসেব করে দেখিয়েছি বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর পরিবর্তে কমানো সম্ভব।

কিন্তু কৃত্রিমভাবে দাম বাড়াতে তৎপর পিডিবি। কমদামী বিদ্যুৎ বেশি, বেশি দামী বিদ্যুৎ কম উৎপাদন করাসহ ১৫ দফা সুপারিশ দিয়েছি,  এই সুপারিশ বাস্তবায়ন হলে বিদ্যুৎ খাত মুনাফায় চলে আসবে।

আলোচনায় অংশ নিয়ে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা ড. ম তামিম বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমেছে। আমি মনে করি জ্বালানি তেলের দাম সমন্বয় করে এখনই বিদ্যুতের দাম কমানো সম্ভব।

ম তামিম বলেন, বিইআরসির ম্যান্ডেট শুধু দাম বাড়নো নয়। দাম বাড়ানোর প্রস্তাব এলেই যেনো তেনোভাবে দাম না বাড়িয়ে যৌক্তিকতা বিচার করা। তাদের ভুমিকা হওয়া উচিত রেফারির মতো। প্রয়োজন হলে ক্যাবের মতো প্রতিষ্ঠানের দাম কমানোর প্রস্তাবের ওপর শুনানি করা উচিত।

আলোচনার শুরুতে বিশাল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির শিক্ষক ফাহিম আল দ্বীন। তিনি হিসেব করে দেখিয়ে দেন কিভাবে দাম কমানো সম্ভব।

জবাবে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিশাল উপস্থাপনাকেই হারাতে পারে। আপনারা যদি গ্রাফিক্স আকারে দেন তাহলে বুঝতে সুবিধা হয়। অথবা আমরাও গ্রাফিক্স আকারে তৈরি করতে পারি। সেখানে থাকবে আমরা কি করছি।

ক্যাবের সভাপিত গোলাম রহমানের সভাপতিত্বে বিদ্যুৎ বিভাগের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা, জ্বালানি  বিশেষজ্ঞ,  ক্যাবসহ অনেকে উপস্থিত রয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১২১৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ০২, ২০১৭
এসআই/বিএস 
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি এর সর্বশেষ