ঢাকা, সোমবার, ৯ বৈশাখ ১৪৩১, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ১২ শাওয়াল ১৪৪৫

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

টেকনাফে হচ্ছে দেশের সবচেয়ে বড় সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্র 

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪১৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৯, ২০১৭
টেকনাফে হচ্ছে দেশের সবচেয়ে বড় সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্র  বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড ও সান এডিসন এনার্জি হোল্ডিং প্রাইভেট লিমিটেডের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষর। ছবি: মুজিবুর

ঢাকা: বেসরকারি উদ্যোগে কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় হচ্ছে দেশের সবচেয়ে বড় সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্র। এ কেন্দ্র থেকে উৎপাদিত বিদ্যুৎ সরাসরি জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হবে।

বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (বিপিডিপি) তত্ত্বাবধানে সিঙ্গারের সান এডিসন এনার্জি হোল্ডিং প্রাইভেট লিমিটেড নামে কোম্পানি এ বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন করবে।

সোমবার (০৯ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় রাজধানীর বিদ্যুৎ ভবনে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড ও সান এডিসন এনার্জি হোল্ডিং প্রাইভেট লিমিটেডের মধ্যে এ সংক্রান্ত চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

বিপিডিপির সচিব মিনা মাসুদ-উজ্জামান ও সান এডিসন এনার্জি হোল্ডিং প্রাইভেট লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ইসমাইল গুরিরো আইস চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বিপিডিপির চেয়ারম্যান প্রকৌশলী খালেদ মাহমুদ বলেন, সিঙ্গাপুরের সান এডিসন এনার্জি হোল্ডিং প্রাইভেট লিমিটেডের প্রকল্পে শতভাগ বিনিয়োগ করবে। সাউদান সোলার পাওয়ার লিমিটেড বাংলাদেশে কাজ করবে। কক্সবাজার শহর থেকে ৪৫ কিলোমিটার দূরে টেকনাফে এ বিদ্যৎ কেন্দ্র স্থাপন করা হবে।

এ বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে উৎপাদিত ২০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সরাসরি জাতীয় গ্রিডে যোগ হবে। চুক্তি স্বাক্ষরের দেড় বছরের মধ্যে (১৮ মাস) প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে। চুক্তি মেয়াদ হবে ২০ বছর। এ কেন্দ্র থেকে উৎপাদিত বিদ্যুৎ ১৭ সেন্ট (১৩ টাকা ২৬ পয়সা) সরকার কিনে নেবে। এটি সোলার বিদ্যুৎ ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় কোম্পানি।

তিনি বলেন, দেশে প্রতিবছর বিদ্যৎ চাহিদা বাড়ছে। চাহিদা মেটাতে বেসরকারি খাতকে উৎসাহ দেওয়া হচ্ছে। এ কোম্পানির উৎসাহ পেয়ে অন্য কোম্পানি বিনিয়োগে আগ্রহী হবে।
 
বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, রেনুয়েবল এনার্জি খাত থেকে ৫ থেকে ৬শ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ নেবে সরকার। সান এডিসন এ খাতে সবচেয়ে বড় বিনিয়োগ করছে।

খালেদ মাহমুদ বলেন, এ খাতে আরও ১ থেকে ২শ প্রকল্প থেকে আমরা বিদ্যুৎ নিতে চাই। এ খাতকে আরও উৎসাহ দেওয়ার জন্য মিরসরাই ও গাইবান্ধায় ১০০০ একর জমিতে সোলার পার্ক করে দেওয়া হবে। বাংলাদেশে কৃষি জমি কমে যাচ্ছে। জমির অপচয় রোধে এ পার্ক করে দেওয়া হবে। এ পার্কে বিনিয়োগকারীরা বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন করবে।

অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎ সচিব ড. আহমদ কায়কাউচ, সান এডিসন এনার্জি হোল্ডিং প্রাইভেট লিমিটেডের পরামর্শক আবদুর রউফ বক্তব্য রাখেন।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৯, ২০১৭
আরইউ/পিসি 
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।