ঢাকা, শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৮ মে ২০২৪, ০৯ জিলকদ ১৪৪৫

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

‘গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়া মরার ওপর খাড়ার ঘা’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০২৯ ঘণ্টা, আগস্ট ২৮, ২০১৫
‘গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়া মরার ওপর খাড়ার ঘা’

ঢাকা: দেড় বছরের মাথায় সরকার আবারও গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়ানোয় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সাধারণ গ্রাহকেরা। গ্রাহকরা দাম বাড়ানোর ‍এ প্রক্রিয়াটিকে মরার ওপর খাড়ার ঘা বলেও আখ্যা দিয়েছেন।



বৃহস্পতিবার (২৭ আগস্ট) বিকেলে গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর সঙ্গে সঙ্গেই তারা এ ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

ওইদিন বিকেলে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিং করে গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হয়।

ব্রিফিংয়ে বিদ্যুতের দাম বাড়‍ানো হয়েছে ২.৯৩ শতাংশ, আর গ্যাসের দাম ২৬.২৯ শতাংশ। ১ সেপ্টেম্বর থেকে এটি কার্যকর হবে বলেও জানানো হয়।

দাম বাড়ানোর বিষয়ে রাজধানীর পূর্ব রামপুরার বাসিন্দা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী রোকেয়া খানম ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এমনিতেই দ্রব্যমূল্যের যে ঊর্ধ্বগতি এর মধ্যে জ্বালানি মূল্য বৃদ্ধি একেবারে মরার ওপর খাড়ার ঘা ছাড়া আর কিছুই না। সরকার যদি প্রতিবছর এভাবে গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়ায় তাহলে আমাদের মত নিম্ন আয়ের মানুষ চরম দুর্ভোগে পড়বে।

তিনি আরও বলেন, একটা কিছুর দাম বাড়লে সঙ্গে সঙ্গে বাড়িভাড়াসহ সব কিছুর দাম বেড়ে যায়। কিন্তু সেই অনুপাতে আমাদের উপার্জন তো বাড়ে না।

মিরপুরের পল্লবী এলাকার ফারজানা বলেন, গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়ছে কিন্তু আমাদের আয় তো বাড়ছে না। আর ঢাকা শহরে এমনিতেই জীবন যাপনে ব্যয় অনেক বেশি। এর মধ্যে এই দুই জিনিসের দাম বাড়ল মানে রিকশা ভাড়াও বেড়ে যাবে!

এদিকে জ্বালানি মূল্য বৃদ্ধির সরকারি সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশের সাম্যবাদী দল (মার্কসবাদী)। বামপন্থী এ রাজনৈতিক সংগঠন এক বিবৃতিতে বলেছে ক্ষমতাসীন সরকার অযৌক্তিকভাবে জ্বালানি মূল্য বাড়িয়েছে। ক্রমাগত দুর্ভোগ বাড়ানো এ সিদ্ধান্ত অবিলম্বে প্রত্যাহার করতে হবে।

উল্লেখ্য, বিদ্যুতের দাম গড়ে ২ দশমিক ৯৩ শতাংশ হারে আর গ্যাসের দাম ২৬ দশমিক ২৯ শতাংশ হারে বাড়িয়েছে সরকার। এতে গ্যাস ব্যবহারে এক চুলার কানেকশনে ৬০০ টাকা, আর দুই চুলার কানেকশন ৬৫০ টাকা হবে। যে দর এর আগে ছিল যথাক্রমে ৪০০ টাকা ও ৪৫০ টাকা।

এছাড়া বিদ্যুতের ক্ষেত্রে ১ থেকে ৫০ ইউনিট পর্যন্ত আগের দর অপরিবর্তিত রয়েছে। তবে ৫০ থেকে ৭৯ ইউনিট খরচে ইউনিট প্রতি ২৭ পয়সা বেড়ে ৩ দশমিক ৫৩ টাকা থেকে ৩ দশমিক ৮০ টাকা করা হয়েছে।

এর আগে ২০১৪ সালের মার্চে বিদ্যুতের পাইকারি ও খুচরা দাম বাড়ানো হয়। আর গ্যাসের দাম সর্বশেষ বাড়ে (সিএনজি) ২০১১ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর।

বাংলাদেশ সময়: ১০২৯ ঘণ্টা, আগস্ট ২৮, ২০১৫
এইচআর/বিএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি এর সর্বশেষ