ঢাকা, রবিবার, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২১ শাবান ১৪৪৫

রাজনীতি

সেনবাগে আ.লীগের দুই পক্ষে সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত ৫

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১৪৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৯, ২০২৩
সেনবাগে আ.লীগের দুই পক্ষে সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত ৫

নোয়াখালী: নোয়াখালী-২ (সেনবাগ) আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পাওয়া সংসদ সদস্য মোরশেদ আলম ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আতাউর রহমান ভূঁইয়া মানিকের অনুসারীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া এবং সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষ চালাকালে বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছেন উভয় পক্ষের লোকজন।

এ ঘটনায় একজন সাংবাদিক ও পুলিশের একজন সহকারী উপপরিদর্শকসহ ৫ জন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে ৮টার দিকে সেনবাগ উপজেলা সদরে সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার দুপুরে আতাউর রহমান ভূঁইয়া মানিকের এক অনুসারীর সঙ্গে সেনবাগ সরকারি কলেজে এমপি মোরশেদ আলমের এক অনুসারীর হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনার জের ধরে সন্ধ্যায় উপজেলা পরিষদ গেট এলাকায় মানিকের এক অনুসারীকে মারধর করে এমপির অনুসারীরা।

ওই ঘটনার জের ধরে পুনরায় রাত সাড়ে ৮টার দিকে উভয়পক্ষ দলবল নিয়ে বাজারে গেলে উভয়পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া, ইটপাটকেল ও কাঁচের বোতল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এ সময় বাজারের দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়।

সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে সেনবাগ থানার সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মো. কাউছার ইটের আঘাতে আহত হন। একই সময় ছবি তুলতে গিয়ে হামলার শিকার হন আরটিভি ও দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার স্থানীয় প্রতিনিধি জাহাঙ্গীর আলম পাটোয়ারী। তারা দুজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন।

বেগমগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশরাফুল আলম রাজিব জানান, মোরশেদ আলম ও আতাউর রহমান ভূঁইয়া দুজনেই সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী। তাদের সমর্থকরা মিছিল করতে বাজারে জড়ো হন। তখন দুই পক্ষের মধ্যে হালকা উত্তেজনা দেখা দেয়। এ সময় কয়েকটি পটকার বিস্ফোরণ ঘটে। দুই পক্ষকে থামাতে গিয়ে সামান্য আঘাত পান পুলিশের এএসআই কাউছার। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি আতাউর রহমান ভূঁইয়া বলেন, তিনি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার ঘোষণা দেওয়ার পর গোটা নির্বাচনী এলাকায় সাধারণ মানুষের মাঝে উৎসব দেখা দেয়। এতে হতাশ হয়ে মোরশেদ আলম তার অনুসারীদের দিয়ে এলাকায় বোমাবাজি করে আতংক সৃষ্টির চেষ্টা করছেন। তারা আমাদের একজন কর্মীকে পিটিয়ে মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে।

বর্তমান সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পাওয়া মোরশেদ আলম জানান, তিনি তার অনুসারীদের বলে দিয়েছেন  শান্ত থাকার জন্য। তারা কোনো ধরনের মারামারি কিংবা ঝামেলায় জড়িত নন।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৪২ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৯, ২০২৩
এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।