ঢাকা, বুধবার, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৭ শাবান ১৪৪৫

রাজনীতি

জাতীয় নির্বাচনের আগে সরকার ভোট চুরির রিহার্সেল দিল: টুকু

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১১০ ঘণ্টা, মার্চ ১৯, ২০২৩
জাতীয় নির্বাচনের আগে সরকার ভোট চুরির রিহার্সেল দিল: টুকু

ঢাকা: জাতীয়তাবাদী যুবদল সভাপতি সুলতান সালাউদ্দীন টুকু বলেছেন, ‘সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে পুলিশ দিয়ে ভোট কেন্দ্র দখল করে জাতীয় নির্বাচনের আগে সরকার রিহার্সেল দিল কিভাবে ভোট চুরি করবে’।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে আওয়ামী লীগের সময় বেশি নেই।

তাদের নিরপেক্ষ সরকার দিতে হবে, সেই সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন হবে। দেশে গণতন্ত্র ফিরে আসবে।

শনিবার (১৮ মার্চ) দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কে বিএনপি আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।  

তিনি বলেন, আমাদের নেতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়ে সশরীরে যুদ্ধ করেছেন। আমরা শহীদ জিয়ার সৈনিক হিসেবে রাজপথের যুদ্ধে জয়ী হবো এই সরকারকে ক্ষমতা থেকে বিতাড়িত করব।

যুবদলের সভাপতি আরও বলেন, আজকে নিত্যপণ্যের দাম আকাশচুম্বি। সবকিছুর দাম নাগালের বাইরে। এই অবৈধ সরকার যতদিন ক্ষমতায় থাকবে মানুষের জীবন তত দূর্বিষহ হয়ে উঠবে। এই সরকার যত তারাতাড়ি বিদায় হবে বাংলাদেশের মানুষও তত শান্তিতে থাকতে পারবে।

টুকু বলেন, বিএনপির একজন নেতাকর্মী যতক্ষণ বাইরে আছে, জীবিত আছে ততক্ষণ তাদের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলন চলবে। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নেতৃত্বে আন্দোলনকে চূড়ান্ত রূপ দেওয়ার জন্য তারা সবাই জীবন দিতে প্রস্তুত আছেন। আমাদের সামনে কোনো বিকল্প নাই। সরকারকে ধাক্কা মারতে হবে। আসুন সবাই ঐক্যবদ্ধ হই।

দেশের মানুষ আজ ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। আমাদের নেতৃত্ব দিতে হবে। এ সময় তি‌নি সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হ‌য়ে রাস্তায় নামার আহ্বান জানান।

বর্তমান সরকারের পদত্যাগ, নেতাকর্মীদের হত্যার প্রতিবাদ এবং নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা পুনর্বহালের দাবিতে ১০ দফা ও বিদ্যুৎসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম কমানোর দাবিতে শনিবার সব মহানগরে সমাবেশ করে বিএনপি, সমমনা দল ও জোট। তারই অংশ হিসেবে নয়াপল্টনে মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপি যৌথভাবে এই প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে। সমাবেশে যুবদলের কয়েক হাজার নেতাকর্মী অংশ নেয়।

মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে এবং ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সদস্য সচিব আমিনুল হক ও দক্ষিণ বিএনপির সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনুর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। অন্যদের মধ্যে স্থায়ী কমিটি সদস্য মির্জা আব্বাস, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আহমেদ আযম খান, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবেদিন ফারুক, মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এনি, রকিবুল ইসলাম বকুল, আফরোজা আব্বাস যুবদলের কেন্দ্রীয় নেতা গিয়াস উদ্দিন মামুন, শফিকুল ইসলাম শফিকসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ০১১০ ঘণ্টা, মার্চ ১৯, ২০২৩
এমএইচ/আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।