ঢাকা, রবিবার, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাতীয়

পাঁচবিবিতে বিএনপির দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত ৮

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ৭, ২০২২
পাঁচবিবিতে বিএনপির দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত ৮

জয়পুরহাট: পাঁচবিবিতে ইউনিয়ন বিএনপির সম্মেলনে দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে কমপক্ষে আটজন আহত হয়েছেন।

 

শুক্রবার (০৭ অক্টোবর) বিকেলে ধুরুইল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে মাঠে পাঁচবিবি উপজেলার কুসুম্বা ইউনিয়ন বিএনপির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সম্মেলনকে কেন্দ্র করে বিএনপির দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ ঘটে। একপর্যায়ে দুই গ্রুপের কর্মী-সমর্থকদের হাতাহাতি ও লাঠিসোটা নিয়ে চলে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ এসে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

প্রত্যক্ষদর্শী ও দলীয় সূত্রে জানা যায়, পাঁচবিবি উপজেলার কুসুম্বা ইউনিয়ন বিএনপির আয়োজনে ধুরুইল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ত্রি-বার্ষিকী সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এ সম্মেলনে পাঁচবিবি উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি এম এ গফুর মণ্ডল, মোহাম্মদপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল আলম রাব্বু ও আটাপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ নওশাদ আলীসহ তাদের কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে সম্মেলনে অবস্থান করছিলেন। পরে উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম ডালিম ও জেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক মাসুদ রানা প্রধানসহ জেলা-উপজেলা বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নিয়ে সম্মেলনে উপস্থিত হন।
এ সময় কিছু বুঝে ওঠার আগেই উভয় পক্ষের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে লাঠিসোটা নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এদিকে এ ঘটনার মধ্য দিয়ে জেলা উপজেলা বিএনপির নেতাকর্মীদের উপস্থিতিতে কুসুম্বা ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করেন উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম ডালিম। কুসুম্বা ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি পদে মোস্তাফিজুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক পদে আব্দুল মতিন মাস্টারের নাম ঘোষণা করেন তিনি।

পাঁচবিবি উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল আলম রাব্বু বলেন, তারা আমাদের নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে নিজেরা কমিটি গঠন করছেন। এ কারণে আমাদের নেতাকর্মীদের নিয়ে সম্মেলনে অবস্থান করছিলাম। আর ঠিক সেই সময়ে তারা আমাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে করে অন্তত আমাদের ৮/১০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে গুরুতর আহত আটাপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ নওশাদ আলীকে প্রথমে পাঁচবিবি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়েছে।

পাঁচবিবি উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম ডালিম বলেন, যেহেতু জেলা-উপজেলা বিএনপির নীতি-নির্ধারকরা সভাস্থলে আছেন, সেখানে তারা এসে মঞ্চ দখলে নিয়ে বিশৃংখলা সৃষ্টি করেছে। তিনি আরও বলেন, এই সম্মেলনে সভাপতি পদে মোস্তাফিজুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক পদে আব্দুল মতিন মাস্টারের নাম ঘোষণা করা হয়েছে।

পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব বলেন, শুক্রবার দুপুরে ধুরুইল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে কুসুম্বা ইউনিয়ন বিএনপির সম্মেলন ছিল। সেখানে বিএনপির অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারনে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলে পুলিশ গিয়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ ঘটনায় যদি কেউ লিখিত অভিযোগ করেন, তাহলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৭, ২০২২
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa