ঢাকা, সোমবার, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০৮ মহররম ১৪৪৬

জাতীয়

মাস্টারপ্ল্যান করে বৃক্ষরোপণ করা হবে: আতিক 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৩১ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০২৪
মাস্টারপ্ল্যান করে বৃক্ষরোপণ করা হবে: আতিক 

ঢাকা: ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, বিশেষজ্ঞদের মতামত নিয়ে মাস্টারপ্ল্যান করে ডিএনসিসিতে বৃক্ষরোপণ করার উদ্যোগ নিয়েছি।  

বুধবার (১২ জুন) বিকেলে ডিএনসিসি নগর ভবনে সম্মেলন কক্ষে পরিকল্পিত সবুজায়নের লক্ষ্যে সঠিক পদ্ধতিতে বৃক্ষরোপণের জন্য অংশীজনদের সঙ্গে এক কর্মশালায় তিনি এ কথা বলেন।

 

আতিকুল ইসলাম বলেন, আমরা গত বছর দুই লাখ বৃক্ষরোপণের ঘোষণা দিয়েছিলাম। এর মধ্যে ৯২ হাজার বৃক্ষরোপণ করা হয়েছে। বাকিগুলো এ বছর রোপণ করা হবে। ঢাকায় আগে কখনো পরিকল্পিতভাবে গাছ লাগানো হয়নি। তাই সকল অংশীজন ও বিশেষজ্ঞদের মতামত নিয়ে মাস্টারপ্ল্যান করে বৃক্ষরোপণ করার উদ্যোগ নিয়েছি।

মেয়র বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে তাপমাত্রা বেড়ে গেছে। এই অবস্থায় বৃক্ষরোপণের কোনো বিকল্প নেই। আমার স্পষ্ট নির্দেশনা ডিএনসিসি এলাকায় কোনো গাছ কাটা যাবে না। গাছ না কেটে সব উন্নয়ন কাজ করতে হবে। বনানী সি ব্লক পার্কে একটি বটগাছ হেলে পড়ে গিয়েছিল। আমাদের প্রকৌশলীরা বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করে সেটি রক্ষা করেছে এবং সোজা করেছে। আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি। আমরা চাই পরিকল্পিতভাবে সবুজায়ন করতে। সেজন্য সংশ্লিষ্ট সকল প্রতিষ্ঠান ও বিশেষজ্ঞ ব্যক্তিদের পরামর্শ নিয়ে কাজটি করা হবে। কি গাছ নির্বাচন করা হবে, কোথায় লাগানো হবে, পরিচর্যা কীভাবে হবে এসব কিছুই বিশেষজ্ঞদের মতামত নিয়ে করা হবে।  

কর্মশালায় বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির (বেলা) প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক জসিম উদ্দীন, বাংলাদেশ ইন্সটিটিউশন অব প্লানারসের সভাপতি আদিল মোহাম্মদ খান, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের প্রধান বৃক্ষ পরিকল্পনাবিদ মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, ঢাকা বিভাগীয় বন অধিদপ্তরের বন সংরক্ষক আরএসএম মনিরুল ইসলাম, যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠান আর্শট-রকফেলার ফাউন্ডেশন কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত চিফ হিট অফিসার বুশরা আফরিন ও বিভিন্ন পরিবেশবাদী সংগঠনের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।  

ডিএনসিসির তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী খন্দকার মাহাবুব আলমের সঞ্চালনায় কর্মশালায় আরও উপস্থিত ছিলেন ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মীর খায়রুল আলম, সচিব মোহাম্মদ মাসুদ আলম ছিদ্দিক, প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগে. জেনা. মো. মঈন উদ্দিন, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. শরীফ উদ্দিন ও তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোহাম্মদ আবুল কাশেম।  

বাংলাদেশ সময়: ১০৩০ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০২৪
এমএমআই/এসআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।