ঢাকা, সোমবার, ২ বৈশাখ ১৪৩১, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৫ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

জৈন্তাপুর সীমান্তে পড়েছিল যুবকের লাশ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০৫৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২৪
জৈন্তাপুর সীমান্তে পড়েছিল যুবকের লাশ

সিলেট: সিলেটের জৈন্তাপুর সীমান্তে শরিফ আহমদ (২১) নামে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১টার দিকে সীমান্তবর্তী লালাখাল বাগছড়া ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী ১৩০১ নং পিলারের কাছ থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে জৈন্তাপুর মডেল থানা পুলিশ।

নিহত শরিফ আহমেদ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর এলাকার চাপারতলা গ্রামের আব্দুল আহাদের ছেলে।

পুলিশ জানায়, ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী ১৩০১ নং পিলারের কাছে স্থানীয়রা মরদেহটি পড়ে থাকতে দেখে লালাখাল বিজিবিতে খবর দেন। পরে বিজিবির পক্ষ থেকে জৈন্তাপুর মডেল থানাকে অবহিত করলে পুলিশ এসে সুরতহাল প্রতিবেদন প্রস্তুতের পর মরদেহ ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

নিহত যুবকের মরদেহ শার্ট-প্যান্ট পরিহিত অবস্থায় একটি কম্বলে রাখা ছিল। তার দেহে আইউসিতে ব্যবহৃত চিকিৎসা সরঞ্জাম ও মুখে অক্সিজেন টিউব, হাতে ক্যানোলা ও প্রশ্রাবের রাস্তায় ক্যাথেটার লাগানো ছিল। মরদেহের পাশে ভারতের একটি হাসপাতালের চিকিৎসা সংক্রান্ত কাগজপত্র পড়েছিল। মরদেহের মাথায় গুরুতর আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে এবং তার নাম ও বাংলাদেশের ঠিকানাসহ পরিচয়  লেখা ছিল বলে জানায় পুলিশ।

জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ তাজুল ইসলাম বলেন, ধারণা করা হচ্ছে নিহত শরিফ পেশায় রাজমিস্ত্রী অথবা অন্য কোনো ক্যাটাগরির মিস্ত্রির কাজ করতেন।

পুলিশের ধারণা কাজের সন্ধানে তিনি কয়েকমাস আগে সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতে গিয়েছিলেন। প্রেসক্রিপশনে তার ইনজুরির বিষয়ে উপর থেকে পড়ে মাথায় আঘাত পাওয়ার তথ্য রয়েছে।

ভারতের কোনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শরিফ আহমদের মৃত্যু হলে সেখানকার লোকজন মরদেহ সীমান্তে ফেলে গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম জানান, নিহতের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে স্বজনরা এসে মরদেহ শনাক্ত করেন। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ০০৪৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২৪
এনইউ/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।