ঢাকা, রবিবার, ১ বৈশাখ ১৪৩১, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

গাংনীতে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১০

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১৩৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২৪
গাংনীতে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১০

মেহেরপুর: গাংনীতে দুই পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। উপজেলার হিজলবাড়িয়া উত্তরপাড়া জামে মসজিদের সামনে রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) রাত ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

 

আহতদের মধ্যে হিজলবাড়িয়া গ্রামের মুমরেজের ছেলে বাদশা মিয়া (৬০), সিরাজুল ইসলাম (৫০), মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে নবিছদ্দীনকে (৫০) গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিরা স্থানীয়ভাবে গ্রাম্য চিকিৎসকের কাছে চিকিৎসা নিয়েছেন।

মসজিদের কয়েকজন মুসল্লি নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, পেশ ইমাম মুফতি মাওলানা মোহাম্মদ আজমাইন হোসেন পাশের গ্রামে মিলাদ পড়তে যাওয়ায় অনুপস্থিত ছিলেন। এ কারণে মুসল্লিদের মধ্যে থেকে মাহফুজ আলম নামের একজন ইমামতি করেন।  

নামাজ শেষে নজরুল ইসলাম নামে এক মুসল্লি বলেন নামাজ পড়ানো হয়নি। এ নিয়ে মুসল্লিদের মধ্যে দুই পক্ষ তৈরি হয় এবং তারা বাগবিতণ্ডায় লিপ্ত হয়। বাগবিতণ্ডা এক পর্যায়ে সংঘর্ষে রূপ নেয়।  

লাঠিসোঁটা নিয়ে সংঘর্ষে জড়ালে উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হন। খবর পেয়ে গাংনী থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়।

মসজিদ কমিটির সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন জানান, মসজিদের ইমাম ছুটি নিয়ে পাশের গ্রামে মিলাদ পড়াতে যাওয়ায় মাহফুজ আলমকে ইমামতির দায়িত্ব দেওয়া হয়। এখানে সমস্যা হওয়ার কথা নয়।  

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত কেউ লিখিত অভিযোগ দেননি। লিখিত অভিযোগ দিলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ০১৩২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২৪
আরএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।