ঢাকা, শনিবার, ৬ বৈশাখ ১৪৩১, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১০ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

অধিকার আদায়ের আন্দোলনে বরিশালের নারী সমাজের অগ্রণী ভূমিকা ছিল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৪
অধিকার আদায়ের আন্দোলনে বরিশালের নারী সমাজের অগ্রণী ভূমিকা ছিল

বরিশাল: বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার জিহাদুল কবির বলেছেন, ভাষা আন্দোলনসহ প্রতিটি অধিকার আদায়ের আন্দোলনে বরিশালের ভূমিকা ছিল উল্লেখযোগ্য। আর এদের মধ্যে অগ্রণী ভূমিকায় ছিল বরিশালের নারী সমাজ।

বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটি (বিআরইউ) এর আয়োজনে তিন দিনব্যাপী ভাষা স্মারক ও সাহিত্য প্রদর্শনীর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

পুলিশ কমিশনার বলেন, একুশে ফেব্রুয়ারি শুধুমাত্র ভাষা আন্দোলনের জন্য বাঙালি জাতীয় জীবনে স্মরণীয় ও গুরুত্বপূর্ণ নয়; বরং একুশে ফেব্রুয়ারি স্বাধীনতা আন্দোলনেরও সূতিকা ঘর।

ভাষা আন্দোলন ও সংগ্রামের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে আমাদের তরুণ সমাজের কাছে, পরবর্তী প্রজন্মের কাছে দেশের এ ইতিহাস ও ঐতিহ্য তুলে ধরার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের সন্তানদের কীভাবে গড়ে তুলবো সেটা আমাদেরই ভাবতে হবে। মাতৃভাষা ও দেশকে ভালোবাসার বিষয়ে তাদের প্রলুব্ধ করতে হবে। মা, মাতৃভাষা ও মাতৃভূমি তিনটি শব্দের শুরুই মা দিয়েই। আমরা মাকে শ্রদ্ধা করি, ভালোবাসি, সম্মান করি। আমি যেখানে জন্ম নিয়েছি সেই দেশটাকে আমার ভালোবাসতে হবে, সম্মান করতে হবে এবং শ্রদ্ধা করতে হবে। সেই সঙ্গে যে ভাষায় আমি কথা বলছি তাকেও একইভাবে ভালোবেসে সম্মান ও শ্রদ্ধা করতে হবে।  

এ সময় তিনি বরিশালের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনুষ্ঠিত ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের বাটি-প্লেট না দিয়ে উপহার হিসেবে বই দেওয়ার আহ্বান জানান। আর এ কাজে বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটিসহ সংবাদকর্মীদের জোরালো ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান।

আলোচনা সভা শেষে কবি অরুপ তারুকদার ও তপংকর চক্রবর্তীকে সংবর্ধনা স্মারক দেওয়া হয়। এছাড়া মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠিত চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী ও বিজয়ীদের পুরস্কার দেওয়া হয়। পরে তিনি প্রদর্শনী ঘুরে দেখেন।  

এর আগে অনুষ্ঠানের শুরুতে তিনি বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয়ে অবস্থিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ম্যুরালে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

এর আগে বেলা ১১টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে জেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার মো. শওকত আলী, জেলা প্রশাসক শহিদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মো. ওয়াহিদুল ইসলাম প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৪
এমএস/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।