ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ বৈশাখ ১৪৩১, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৮ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

সনদ জালিয়াতির অভিযোগে প্রধান শিক্ষকের নামে আদালতে মামলা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭০৪ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০২৩
সনদ জালিয়াতির অভিযোগে প্রধান শিক্ষকের নামে আদালতে মামলা

পিরোজপুর: সনদ জালিয়াতির অভিযোগে পিরোজপুরে মো. হাবিবুর রহমান মিনা নামে এক প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করা হয়েছে। তিনি জেলার নাজিরপুর উপজেলার শ্রীরামকাঠী ইউনয়িনের সপ্তগ্রাম সম্মিলনী খেজুরতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক।

শনিবার (২৫ মার্চ) ওই মামলার একটি কপি স্থানীয় সংবাদকর্মীদের কাছে দিয়েছেন মামলার বাদী ও ওই বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক মো. জাকির হোসেন। তার বাড়ি উপজেলার শ্রীরামাকাঠী ইউনিয়নের চৌঠাইমহল গ্রামে।

অভিযুক্ত ওই প্রধান শিক্ষকের বাড়ি জেলার সদর উপজেলার কদমতলায়। তিনি জামায়াতে ইসলামের একজন নেতা, পিরোজপুর-১ আসনের সাবেক এমপি ও যুদ্ধপরাধের অভিযোগে আজীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা মাওলানা দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর একান্ত ঘনিষ্ট সহোচর।

দায়ের হওয়া মামলা সূত্রে জানা গেছে, ওই বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমান শিক্ষাগত সনদ অনুযায়ী ১৯৭৪ সালে সাড়ে ১১ বছর বয়সে দাখিল (এসএসসি) পাশ করেছেন। ফাজিল (ডিগ্রী) পারীক্ষা দিয়েছেন ১৯৮০ সালে। নিয়ম অনুযায়ী পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের পরে ফাজিলের সনদ ইস্যু হয়ে থাকলেও তার সনদ ইস্যু হয়েছে  ১৯৭৯ সালে। তাছাড়া ১৯৭৮ সালের পাশ করা তার আলিম (এইচএসসি) সনদে মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের (ঢাকা) নামের বানান ভুল আছে। তার আলিম পাশের সনদে জন্ম তারিখ ১৯৬০ সালের ১ মার্চ হলেও তা কেটে ১৯৬৩ সালের ১ জুন করা হয়েছে।

এদিকে অভিযুক্ত শিক্ষক তার সনদের জন্ম তারিখ ঠিক আছে দাবি করে জানান, তিনি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের মাধ্যমে তার দাখিলের সনদের জন্ম তারিখ ঠিক করিয়েছেন।

জানা গেছে, ওই শিক্ষক এর আগে ওই বিদ্যালয়ের ইসলাম ধর্ম বিষয়ের শিক্ষক ছিলেন। স্কুলের প্রধান শিক্ষকের অবসরের পর এবং সহকারী প্রধান শিক্ষকের পদটি শূন্য থাকায় জেষ্ঠ্যতার ভিত্তিতে তিনি প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পান।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মাহিদুল ইসলাম জানান, তার সনদে জন্ম তারিখ কেটে স্বাক্ষর দেওয়া আছে। তবে ওই স্বাক্ষরটি বোর্ডের কোন কর্মকর্তার তা দেওয়া নেই। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করা হবে।

ওই বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সঞ্জীব পাগল জানান, ওই শিক্ষকের সনদ জালিয়াতির অভিযোগে আদালতে মামলা করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০১ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০২৩
এফআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad