ঢাকা, রবিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আইন ও আদালত

ফরিদপুর বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের ২০ নেতাকর্মীর জামিন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪০ ঘণ্টা, অক্টোবর ৪, ২০২২
ফরিদপুর বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের ২০ নেতাকর্মীর জামিন

ফরিদপুর: বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর সমাবেশে হামলার ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতার মামলায় ফরিদপুর বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদলের ২০ নেতাকর্মী জামিন পেয়েছেন।

মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলামের হাইকোর্ট বেঞ্চ তাদের ৬ সপ্তাহের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন মঞ্জুর করেন।

এসময়ের মধ্যে তাদের নিম্ন আদালতে হাজির হতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এর আগে তারা সশরীরে আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে বিচারক এ আদেশ দেন।

জামিনপ্রাপ্তরা হলেন- জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আফজাল হোসেন খান পলাশ ও সৈয়দ জুলফিকার হোসেন জুয়েল, পৌর কাউন্সিলর সামসুল আরেফিন সাগর, কোতোয়ালি থানা বিএনপির সহ-সভাপতি নান্টু খান, মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য কাইয়ুম মিয়া, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন, মহানগর যুবদলের সভাপতি বেনজির আহমেদ তাবরিজ, জেলা যুবদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামীম তালুকদার, দেলোয়ার হোসেন দিদার ও নূর আলম, যুবদল নেতা  আশিকুজ্জামান মিঠু, নাদিম হাসান, মহানগর ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মুনিব হাসান সোহাগ, ছাত্রদল নেতা  সাদ্দাম হোসেন, নাসির খান, ইউনিয়ন বিএনপির আবুল কালামসহ ২০ নেতাকর্মী।

আদালতে জামিনপ্রাপ্তদের সার্বিক সহায়তায় ছিলেন যুবদল নেতা মাহবুবুল হাসান ভূঁইয়া পিংকু। তিনি জানান, ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, অ্যাডভোকেট নূর ইসলাম সিদ্দিকী ও অ্যাডভোকেট জুয়েল সুমন মঙ্গলবার বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলামের হাইকোর্ট বেঞ্চে ২০ নেতাকর্মীর পক্ষে জামিন প্রার্থনা করেন।

অ্যাডভোকেট জুয়েল সুমন জানান, আদালত আসামিদের ৬ সপ্তাহের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন মঞ্জুর করেন এবং এ সময়ের মধ্যে নিম্ন আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন।

জানা গেছে, বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে গত ৪ সেপ্টেম্বর শহরের কোর্ট চত্বরে সমাবেশ ও আনন্দ র‌্যালির আয়োজন করা হয়। তবে, কর্মসূচি শুরুর পরপরই সেখানে পুলিশের উপস্থিতিতেই আওয়ামী লীগ ও তাদের অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা হামলা করে বলে বিএনপির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়।

এদিকে হামলার পরদিন ৫ সেপ্টেম্বর বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের নামে থানায় দুটি মামলা দায়ের করা হয়।

এর মধ্যে জেলা ছাত্রলীগের ছাত্রবৃত্তি বিষয়ক সম্পাদক রাকিবুল হাসান রাসেল বাদী হয়ে ৫৮ জন নেতাকর্মীর নামোল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ৫০০ জনকে আসামি করে একটি মামলাটি করেন। এ মামলায় মঙ্গলবার উচ্চ আদালতে হাজির হয়ে জামিন পেয়েছেন ২০ জন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪০ ঘণ্টা, অক্টোবর ৪, ২০২২
এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa