ঢাকা, সোমবার, ১০ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জানুয়ারি ২০২২, ২০ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

আইন ও আদালত

সিনহা হত্যা মামলা: তদন্ত কর্মকর্তার জেরা সম্পন্ন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১, ২০২১
সিনহা হত্যা মামলা: তদন্ত কর্মকর্তার জেরা সম্পন্ন

কক্সবাজার: অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হত্যা মামলায় অন্যতম প্রধান সাক্ষী মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এএসপি খাইরুল ইসলামের জেরা সম্পন্ন হয়েছে। এ নিয়ে মামলাটিতে ৬৫ সাক্ষীর জবানবন্দি, সাক্ষ্যগ্রহণ ও জেরা সম্পন্ন হয়েছে।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) বিকেল ৪টার দিকে তার সাক্ষ্যগ্রহণ, জবানবন্দি ও জেরা সম্পন্ন হয়।

আদালতে জবানবন্দি দেওয়ার পর তদন্তকারী কর্মকর্তাকে আসামি পক্ষের আইনজীবীরা পাঁচ দিন ধরে জেরা করেছেন। পরে বিকেল পাঁচটায় আদালত মুলতবি ঘোষণা করে আগামী ৬, ৭ ও ৮ ডিসেম্বর মামলার পরবর্তী দিন ধার্য করেন।

বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইলের আদালতে জেরা শুরু হয়।

আসামি পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট রানা দাশ গুপ্তের জেরায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এএসপি খাইরুল ইসলাম আদালতে বলেন, ওসি প্রদীপসহ আসামিরা পরিকল্পিতভাবেই মেজর সিনহাকে হত্যা করেন। টেকনাফ থানায় দায়িত্ব পালনকালে ওসি প্রদীপের নানা অপকর্মের খবর ভিডিও ধারণ করার খবর জেনে গেলে ওসি প্রদীপ মেজর সিনহাকে হত্যার পরিকল্পনা করেন।

অ্যাডভোকেট ফরিদ আলম জানান, এই মামলায় গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষী হলেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। এটি একটি সেনসিটিভ ও চাঞ্চল্যকর মামলা। আসামি পক্ষের আইনজীবীরা তদন্তকারী কর্মকর্তাকে গত পাঁচ দিন ধরে জেরা করেছেন।

তিনি জানান, এ নিয়ে এই মামলায় মোট ৬৫ জন সাক্ষীর জবানবন্দি, সাক্ষ্যগ্রহণ ও জেরা সম্পন্ন হয়েছে। এই মামলায় চার্জশিটে মোট ৮৩ জনকে সাক্ষী করা হয়েছিল।

পিপি জানান, আদালতের কার্যক্রমের শেষের দিকে আদালত ৮ জন আসামিকে কার্যবিধি ৩৪২ ধারায় কোনো বক্তব্য আছে কিনা জানতে চান। তারা লিখিতভাবে আদালতকে জানাবেন বলে জানান। বরখাস্ত ওসি প্রদীপসহ অপর ৭ আসামি কার্যবিধি ৩৪২ ধারায় আগামী ধার্য তারিখে আদালতে বক্তব্য দেবেন বলে জানিয়েছেন।

অপরদিকে আসামি ওসি প্রদীপের আইনজীবী অ্যাডভোকেট রানা দাশ গুপ্ত জানান, আজ তার জেরা শেষে মামলার ৮ জন আসামি সিনহা হত্যার ঘটনায় নির্দোষ দাবি করে কার্যবিধি ৩৪২ ধারায় আদালতে বক্তব্য দিয়েছেন। আগামী ধার্য তারিখে ওসি প্রদীপসহ অপর ৭ আসামি আদালতে তাদের বক্তব্য দেবেন।  

এর আগে সকাল সাড়ে ৯টায় ওসি প্রদীপসহ এই মামলার ১৫ জন আসামিকে কড়া নিরাপত্তায় আদালতে নিয়ে আসা হয়।

গত বছর ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০১, ২০২১
এসবি/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa