ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মাঘ ১৪২৯, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১১ রজব ১৪৪৪

আইন ও আদালত

বলাৎকার মামলায় যুবকের ১৪ বছরের কারাদণ্ড

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৪২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১, ২০২২
বলাৎকার মামলায় যুবকের ১৪ বছরের কারাদণ্ড

লক্ষ্মীপুর: অভিনয়ের সুযোগ করে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে এক যুবককে বলাৎকারের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় শরিফুল ইসলাম কনক ওরফে রিপন (২২) নামে এক জনের ১৪ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

 

একই মামলায় ইসমাইল হোসেন বাবু (২৭) নামে আরেক আসামিকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত। রায়ের সময় মামলার দুই আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।  

বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে জেলা জজ আদালতের বিচারক মো. রহিবুল ইসলাম এ রায় দেন।  

দণ্ডপ্রাপ্ত কনক জেলা সদর উপজেলার বাঙ্গাখাঁ ইউনিয়নের নেওয়ামতপুর গ্রামের অজি উল্যার ছেলে। খালাসপ্রাপ্ত ইসমাইল জেলার কমলনগর উপজেলার চরমার্টিন গ্রামের মৃত আবু সাঈদের ছেলে।  

জেলা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) মো. জসিম উদ্দিন বাংলানিউজকে রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।  

মামলা ও আদালত সূত্র জানায়, গত ০৪ মে রাতে এক কলেজছাত্রকে (২২) বলাৎকারের অভিযোগে ইসমাইল ও কনক নামে দু’জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও দু’তিন জনের নামে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। ০৫ মে মামলাটি দায়ের করেন ভিকটিমের বাবা আবুল কাশেম জব্বার। ওই মামলার দুই আসামিকেই গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠায় পুলিশ। এরপর থেকে তারা কারাগারেই ছিলেন। এ মামলায় অভিযুক্ত আসামি কনক দোষ স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন।  

মামলার ২৫ দিনের মাথায় গত ৩০ মে মামলাটি তদন্ত করে আদালতে প্রতিবেদন জমা দেয় পুলিশ। এতে এজাহার নামীয় দুই আসামিকেই অভিযুক্ত করা হয়।  

আদালত ঘটনার প্রায় সাত মাসের মাথায় এ মামলার রায় দেন। তদন্ত কর্মকর্তার তদন্ত প্রতিবেদন ও সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে মামলার দ্বিতীয় আসামির ১৪ বছরের কারাদণ্ড ও দোষী প্রমাণিত না হওয়ায় প্রধান আসামি ইসমাইলকে খালাসের রায় দেন আদালত।  

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০১, ২০২২
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa