ঢাকা, শুক্রবার, ৬ কার্তিক ১৪২৮, ২২ অক্টোবর ২০২১, ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ইসলাম

হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালামকে বেশি মুহব্বত করতে হবে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১৪৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২১
হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালামকে বেশি মুহব্বত করতে হবে ...

ঢাকা: মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনারা শুধু মহান আল্লাহ পাক তিনি নন এবং নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি নন; এছাড়া সমস্ত শান-মান, ফাযায়িল-ফযীলত, বুযূর্গী-সম্মান মুবারক উনাদের মালিক হচ্ছেন উনারা।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের মাওলানা মোহাম্মদ আকরাম খাঁ হলে আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

রাজারবাগ দরবার শরীফ আলোচনা সভা আয়োজন করে।

বক্তারা বলেন, মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র সূরা আহযাব শরীফ উনার ৬নং পবিত্র আয়াত শরীফে ইরশাদ মুবারক করেন, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি এবং মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনারা মু’মিনদের নিকট জানের চেয়েও অধিক প্রিয় এবং নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি হচ্ছেন সমস্ত সৃষ্টির মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র পিতা ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এবং মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনারা হচ্ছেন সমস্ত সৃষ্টির মহাসম্মানিত মাতা আলাইহিন্নাস সালাম। ” অতএব, মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদেরকে মহাসম্মানিত মাতা হিসেবে মেনে উনাদেরকে জানের চেয়েও বেশি মুহব্বত করতে হবে। অন্যথায় ঈমানদার হওয়া কখনোই সম্ভব হবেনা।

তারা আরো বলেন, মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনারা মোট তেরজন। উনাদের সংখ্যা তেরজনের কম বা বেশি বলা কুফরী। উনাদের মধ্যে প্রথম উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত খাদিজাহ আলাইহাস সালাম। উনাকে উম্মুল মু’মিনীন আল ঊলা সাইয়্যিদাতুনা হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম বলে সম্বোধন করতে হবে। উনাদের মধ্যে দ্বিতীয় উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত সাওদাহ আলাইহাস সালাম। উনাকে উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আছ ছানিয়াহ আলাইহাস সালাম বলে সম্বোধন করতে হবে।

উনাদের মধ্যে তৃতীয় উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আয়িশাহ আলাইহাস সালাম। উনাকে উম্মুল মু’মিনীন আছ ছালিছাহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত ছিদ্দিক্বাহ আলাইহাস সালাম বলে সম্বোধন করতে হবে।

রাজারবাগ দরবার শরীফের প্রতিনিধিরা বলেন, মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র সূরা আহযাব শরীফ উনার ৩২ নম্বর আয়াতে ইরশাদ করেন, হে মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম! আপনারা কোনো পুরুষ-মহিলা তথা সৃষ্টির কারো মতো নন। ” তাই, মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের সমুন্নত শান-মান মুবারক নিয়ে সংশয় ও সন্দেহ করা, উনাদের সমালোচনা করা সুস্পষ্ট হারাম ও কবীরাহ গুণাহ এবং কঠিন লা’নতগ্রস্ত হওয়ার কারণ। মূলত, উনারাই হচ্ছেন ঈমান। উনাদের প্রতি ঈমান আনলে ঈমানদার হওয়া যায়।  উনারাই জান্নাতের মালিক। উনাদের প্রতি ঈমান না আনলে ঈমানদার হওয়া যায়না। জান্নাতীও হওয়া যায়না। পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র হাদীছ শরীফ অনুসারে উনাদের মানহানীকারীর একমাত্র শাস্তি মৃত্যুদণ্ড। তাই, যে বা যারাই প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে, অনলাইনে বা অফলাইনে মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের মানহানীর অপচেষ্টা করছে, তাদের ব্যাপারে ‘শরয়ী শাস্তি মৃত্যুদণ্ড’ বাস্তবায়ন করতে হবে।  যা বিশ্বের প্রত্যেক মুসলিম দেশের সরকারের জন্য ফরজে আইন।

আলোচনা সভায় হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের সু-মহান শান-মান ও মর্যাদা মুবারক নিয়ে আলোচন করেন রাজারবাগ দরবার শরীফের প্রতিনিধিরা।

বিশেষ করে উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের সু-মহান শান-মান ও মর্যাদা মুবারক সারা বিশ্বে ব্যাপকভাবে প্রচার-প্রসারে মুজাদ্দিদে আ’যম, সুলতানুন নাছির ঢাকা রাজারবাগ শরীফের সম্মানিত হযরত শায়েখ আলাইহিস সালাম উনার অবদান মুবারক ও কার্যক্রম তুলে ধরেন, রাজারবাগ দরবার শরীফ উনার প্রতিনিধি, দৈনিক আল ইহসান শরীফ ও মাসিক আল বাইয়্যিনাত শরীফ পত্রিকার কলামিস্ট মুফতী শুয়াইব আহমেদ প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ০১৪৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২১
এমএমআই/কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa