ঢাকা, রবিবার, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৬ জুন ২০২২, ২৬ জিলকদ ১৪৪৩

ইসলাম

জার্মানির হানোফার কারাগারে প্রথমবারের মতো নামাজখানা নির্মাণ

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫০০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৬
জার্মানির হানোফার কারাগারে প্রথমবারের মতো নামাজখানা নির্মাণ জার্মানির হানোফার কারাগার

হানোফার (Hannover) উত্তর জার্মানির নিডারজাখসেন অঙ্গরাজ্যের রাজধানী। শহরটিতে প্রায় ৫ লাখ মানুষের বাস। হানোফার থেকে মাত্র ৩০ মাইল দক্ষিণ-পশ্চিমে হামেল্‌ন (ইংরেজি উচ্চারণে হ্যামেলিন) শহর অবস্থিত। শহরটি হ্যামেলিনের বাঁশিওয়ালার রূপকথার জন্য সুপরিচিত।

হানোফার (Hannover) উত্তর জার্মানির নিডারজাখসেন অঙ্গরাজ্যের রাজধানী। শহরটিতে প্রায় ৫ লাখ মানুষের বাস।

 

হানোফার থেকে মাত্র ৩০ মাইল দক্ষিণ-পশ্চিমে হামেল্‌ন (ইংরেজি উচ্চারণে হ্যামেলিন) শহর অবস্থিত। শহরটি হ্যামেলিনের বাঁশিওয়ালার রূপকথার জন্য সুপরিচিত।

জার্মানির হানোফার শহরে রয়েছে একটি বিশাল কারাগার। ওই কারাগারে মুসলিম বন্দিদের জন্য একটি নামাজখানা নির্মাণ করা হয়েছে। এর আগে জার্মানির কোনো কারাগারে নামাজের জন্য অালাদা স্থান ছিলো না।  

নবনির্মিত নামাজখানাটি প্রায় ৬০ বর্গমিটার। সেখানে একসঙ্গে ৫০ জন মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারবেন।  

মুসলমানদের জন্য নামাজখানা নির্মাণ প্রসঙ্গে এক কারা কর্মকর্তা জানিয়েছেন, হানোফার এলাকার মুসলমানদের সহযোগিতা এবং তাদের সঙ্গে ভালো সম্পর্কের কারণে মুসলিম বন্দীদের জন্য এই নামাজখানাটি নির্মাণ করা হয়েছে।

ভবিষ্যতে মুসলিম বন্দীদের কোরআন শেখানোর ব্যবস্থাও করা হবে বলে জানান ওই কারা কর্মকর্তা।

হানোফার কারাগারের মুসলিম বন্দীদের মানসিক সমর্থন এবং মানসিক চিকিৎসার জন্য প্রায় ৩০ জন মুসলিম সাইকোলজিস্ট কর্মরত আছেন।  

তবে কারাগারটিকে কী পরিমাণ মুসলিম বন্দী রয়েছে সেটা জানানো হয়নি।

বাংলাদেশ সময়: ২১০১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৬
এমএইউ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa