ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৮ জানুয়ারি ২০২২, ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

আন্তর্জাতিক

লিবীয় উপকূলে নৌকাডুবিতে ৭৫ অভিবাসনপ্রত্যাশীর মৃত্যু

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০০১ ঘণ্টা, নভেম্বর ২২, ২০২১
লিবীয় উপকূলে নৌকাডুবিতে ৭৫ অভিবাসনপ্রত্যাশীর মৃত্যু

ইতালির উদ্দেশে লিবিয়া উপকূল থেকে যাত্রাকরা নৌকা-ডুবে ৭৫ অভিবাসনপ্রত্যাশীর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে আরও ১৫ জনকে।

 
শনিবার (২০ নভেম্বর) এক বিবৃতিতে জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা আইওএম জানিয়েছে (আইওএম) এমন তথ্য দিয়েছে। তবে মৃতদের মধ্যে বাংলাদেশি কেউ আছে কিনা, সে তথ্য জানাতে পারেনি আইওএম। খবর লিবিয়া অবসারভার।  

এতে বলা হয়, গত সপ্তাহের শেষদিকে লিবীয় উপকূলে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইতালিতে অনুপ্রবেশের সময় সাগরে নৌকা-ডুবে এই প্রাণহানি ঘটেছে। যাদের উদ্ধার করা হয়েছে, তাদেরকে লিবিয়ার জুওয়ারা বন্দরে নেওয়া হয়েছে। সাগরের মৎস্যজীবীরা তাদের উদ্ধার করেছেন।

শনিবার ভূমধ্যসাগর থেকে কয়েক ডজন শিশুসহ ৪২০ অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করেছে ইতালির কোস্টগার্ড। এক বিবৃতিতে দেশটির উপকূলরক্ষীরা বলছেন, সিসিলির দক্ষিণাঞ্চলের ছোট্ট দ্বীপ লাম্পাডুসায় মোটরবোটে ৭০ জনকে নিরাপদে আনা হয়েছে।
এছাড়াও একটি ভিন্ন উপকূলরক্ষী জাহাজ এদিন সন্ধ্যায় সিসিলি উপকূল থেকে ১১৫ কিলোমিটার দূরে ভূমধ্যসাগরের একটি মাছ ধরার নৌকা থেকে ৩৫০ অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করেছে। যাদের মধ্যে ৮০টি শিশু রয়েছে।

এরইমধ্যে উত্তর আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ—বিশেষ করে লিবিয়া ও তিউনিসিয়া উপকূল থেকে উন্নত জীবনের প্রত্যাশায় ইতালি ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে পাড়ি জমাতে থেমে নেই অভিবাসনপ্রত্যাশীদের যাত্রা। এতে নৌকাডুবিতে সাগরে সলিল-সমাধি ঘটছে ইউরোপে অনুপ্রবেশচেষ্টাকারীদের।  
জানা যায়, গত ১ অক্টোবর থেকে এ নিয়ে মধ্য ভূমধ্যসাগরে অন্তত ১০টি নৌকাডুবির ঘটনা ঘটলো, সবগুলো নৌকাই অভিবাসনপ্রত্যাশীবাহী ছিল। সাত বছরে সমুদ্রপথে ২০ হাজারের বেশি অভিবাসনপ্রত্যাশীর মৃত্যু হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৫৯ ঘণ্টা, নভেম্বর ২২, ২০২১ 
এসআইএস
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa