ঢাকা, সোমবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ মে ২০২২, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩

আন্তর্জাতিক

অস্ট্রেলিয়া দাবানল: ঝুঁকিতে ৩০ হাজার পর্যটক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৩৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০১৯
অস্ট্রেলিয়া দাবানল: ঝুঁকিতে ৩০ হাজার পর্যটক দাবানল নিয়ন্ত্রণে আনতে যথাসাধ্য চেষ্টা করছে কর্তৃপক্ষ। ছবি: সংগৃহীত

দু’মাস ধরে দাবানলে পুড়ছে অস্ট্রেলিয়া। নভেম্বরে দাবানলে বিভিন্ন সময় অস্ট্রেলিয়ার ছয় রাজ্যেই জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। সোমবার (৩০ ডিসেম্বর) নতুন করে জরুরি অবস্থা জারি করা হয় দেশটির ভিক্টোরিয়া রাজ্যে। দাবানলের কারণে এ রাজ্যের কিছু অঞ্চল থেকে নিরাপদ স্থানে চলে যেতে বলা হয় পর্যটক ও স্থানীয় বাসিন্দাদের। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের মধ্যে না যাওয়ায়, তারা আটকে পড়েছেন ওই অঞ্চলে।

সোমবার আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম এ তথ্য জানায়। খবরে বলা হয়, রোববার (২৯ ডিসেম্বর) ভিক্টোরিয়া রাজ্যের ইস্ট গিপ্সল্যান্ড অঞ্চল থেকে প্রায় ৩০ হাজার পর্যটক ও ৪৫ হাজার স্থানীয় বাসিন্দাকে জরুরি ভিত্তিতে চলে যেতে বলা হয়।

সোমবার দুপুরে এ অঞ্চলে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করা হয় এবং অতিসত্ত্বর এ অঞ্চল ত্যাগ করতে নির্দেশ দেয় কর্তৃপক্ষ। এ পর্যন্ত ১০ বার জরুরি সতর্ক বার্তা দেওয়া হয়েছে।

এদিন দুপুর ১টায় রাজ্যের গুরুত্বপূর্ণ মহাসড়ক ‘দ্য প্রিন্সেস হাইওয়ে’ বন্ধ করে দেওয়ায় ভেতরে ভয়াবহ দাবানল অঞ্চলেই আটকে পড়েছেন অসংখ্য মানুষ। ইস্ট গিপ্সল্যান্ডের পর্যটন স্থানগুলোতে যাওয়া এবং আসার জন্য একমাত্র সড়ক এটি। পরিস্থিতির ভয়াবহতা উপলব্ধি করেননি বেশিরভাগ মানুষ। এ অঞ্চল ত্যাগ করতে না পেরে এখন তারা ভয়াবহ ঝুঁকিতে রয়েছেন।

ইস্ট গিপ্সল্যান্ডের ১০টিরও বেশি স্থানে জ্বলছে আগুন; এর মধ্যে কিছু অঞ্চলে আগুন জ্বলছে এক মাসেরও বেশি সময় ধরে। প্রচণ্ড তাপদাহ, শুষ্ক আবহাওয়া ও বাতাসের তীব্র বেগের কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা অসম্ভব হয়ে পড়েছে। এ রাজ্যের বেশিরভাগ অঞ্চলে তাপমাত্রা ৪২ থেকে ৪৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ওঠানামা করছে। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা হোপটোনে, ৪৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া দপ্তর জানায়, সোমবার তীব্র গতিবেগে ঝড়ো হাওয়া বইবে এ অঞ্চলে। এছাড়া বজ্রপাতসহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ঝড়ো বাতাসে দাবানল আরও ছড়িয়ে পড়তে পারে।

ইস্ট গিপ্সল্যান্ড ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা বেন র‍্যানকিন বলেন, দাবানল কয়েক সপ্তাহ বা কয়েক মাস পর্যন্ত চলতে পারে। কবে এ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসবে তা এখনই বলা যাচ্ছে না।

২১ নভেম্বর থেকে দাবানলে পুড়ছে ভিক্টোরিয়া। এছাড়াও অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস পুড়ছে দাবানলে। সেখানেও জারি রয়েছে জরুরি অবস্থা।

>> ক্ষমা চাইলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০১৯
এফএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa