ঢাকা, সোমবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ মে ২০২২, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩

আন্তর্জাতিক

একাকী পর্বতারোহণ নিষিদ্ধ করলো নেপাল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২১১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০১৭
একাকী পর্বতারোহণ নিষিদ্ধ করলো নেপাল ‘সোলো ক্লাইম্বিং’ বা একাকী পর্বতারোহণ নিষিদ্ধ করেছে নেপাল

বিশ্বের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্টে ‘সোলো ক্লাইম্বিং’ বা একাকী পর্বতারোহণ নিষিদ্ধ করেছে নেপাল সরকার। পর্বতারোহণের সময় সংঘটিত দুর্ঘটনার সংখ্যা কমিয়ে আনতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ নিষেধাজ্ঞা মাউন্ট এভারেস্টসহ নেপালের আরও কিছু পর্বতের বেলায়ও কার্যকর থাকবে।

নেপালের ট্যুরিজম কর্তৃপক্ষ জানায়, পর্বতারোহীদের নিরাপত্তা বাড়ানো ও দুর্ঘটনার সংখ্যা কমানোর জন্য এ আইনি সংশোধনী আনা হয়েছে। নতুন আইন অনুযায়ী একাকী এভারেস্টের চূড়ায় ওঠা থেকে বিরত রাখা হবে।

এছাড়া অন্ধ ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরা এভারেস্ট আরোহণের অনুমতি পাবে না।  

২০১৭ সালে রেকর্ড সংখ্যক পর্বতারোহী এভারেস্ট জয়ের চেষ্টা চালান। আর এতে হতাহতের সংখ্যাও ছিল অন্য বছরের তুলনায় বেশি।  

চলতি বছর এভারেস্ট বিজয়ের প্রচেষ্টায় মৃতের সংখ্যা ছয়। এরমধ্যে ৮৫ বছর বয়সী নেপালি মিন বাহাদুরের নাম বেশি আলোচিত হয়। মিন বাহাদুর বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক এভারেস্ট বিজয়ীর খেতাব অর্জনের প্রচেষ্টায় মারা যান। বিশ্বখ্যাত সুইস পর্বতারোহী ইউলি স্টেক এভারেস্টের পার্শ্ববর্তী একটি চূড়ায় ‘সোলো ক্লাইম্বিং’য়ের সময় মারা যান।

নতুন আইন অনুযায়ী বিদেশি পর্বতারোহীদের বাধ্যতামূলকভাবে স্থানীয় গাইডের সহযোগিতা নিতে হবে। এতে অনেক স্থানীয় লোকের কর্মসংস্থান হবে বলে মনে করছে কর্তৃপক্ষ। তবে অন্ধ ও প্রতিবন্ধীদের নিষেধাজ্ঞাটি বৈষম্যমূলক বলে মনে করছেন অনেকে।

এক হিসাবে বলা হয়, এভারেস্ট জয় করতে আসা পর্বতারোহীদের ২০ শতাংশের বেশি দুর্ঘটনা এবং অসুস্থতার কারণে মারা যান। ১৯২০ সাল থেক ১৯৮০ সাল পর্যন্ত দুইশরও বেশি মানুষ মারা গেছেন এতে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০১৭
এনএইচটি/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa