ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ মাঘ ১৪২৯, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩, ০৮ রজব ১৪৪৪

ভারত

পশ্চিমবঙ্গের নতুন রাজ্যপালকে নীল-সাদা রসগোল্লা দিয়ে বরণ মমতার

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫০৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৩, ২০২২
পশ্চিমবঙ্গের নতুন রাজ্যপালকে নীল-সাদা রসগোল্লা দিয়ে বরণ মমতার

কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একজন ফুটবলপ্রেমী ব্যক্তিত্ব। জানা যায়, তার প্রিয় দল আর্জেন্টিনা।

তবে তা কতটা সঠিক এ বিষয়ে দ্বিমত থাকলেও মুখ্যমন্ত্রীর যে প্রিয় রঙ নীল-সাদা তা সকলেরই জানা। আর সে কারণে যেকোনো সরকারি বিষয় তিনি নীল-সাদা রঙের গ্রহণযোগ্যতা দিয়ে থাকেন।

বুধবার (২৩ নভেম্বর) পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল হিসেবে শপথ নিলেন সিভি আনন্দ বোস। স্থানীয় সময় সকাল পৌনে এগারোটা নাগাদ কলকাতার রাজভবনে শপথ নেন তিনি। তাকে শপথ বাক্য পাঠ করান কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব।

শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের রাজ্যপাল এবং রাজ্য সরকারের মধুর সম্পর্কের সূচনা করতে এদিন মমতার তরফে বিশেষ নীল-সাদা সাজে সজ্জিত ২ হাঁড়ি রসগোল্লা উপহার দেওয়া হয় রাজ্যপালকে।  

জানা যায়, রাজ্যপাল সিভি বোস একসময় কলকাতার স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়ায় কর্মরত ছিলেন, তখন কেসি দাসের রসগোল্লা খেতেন। তাই নতুন রাজ্যপালকে শুভেচ্ছা জানাতে মুখ্যমন্ত্রীর তরফে কেসি দাসের রসগোল্লাই উপহার হিসেবে দেওয়া হয়েছে।

তবে তা মমতার স্টাইলে। রাজ্যের প্রশাসনিক ভবন নবান্ন সূত্র মারফত জানা যায়, মমতা প্রিয় রঙ নীল-সাদাকে খেয়াল রেখে বিশেষ দুটি নীল হাঁড়িতে ৫০টি করে সাদা রসগোল্লা ছিল। নবীন চন্দ্র দাসের বংশধর কেসি দাস। তার হাত ধরেই প্যাকেটজাত টিনের কৌটো করে রসগোল্লা বিদেশে পাঠানোর দক্ষতা ও সুখ্যাতি আছে।

মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) সন্ধ্যায় নবান্ন থেকে ফোনকল যায় এসপ্ল্যানেডের কেসি দাস মিষ্টি বিপণীতে। অর্ডারে দেওয়া হয় ১০০ পিস রসগোল্লার। নির্দিষ্ট করে দোকান কর্তাকে বলা হয় মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে রসগোল্লার হাঁড়ি যেন নীল রঙের হয়। নাহলে নীল-সাদা কম্বিনেশন জমবে না। যেমন নির্দেশ, তেমন কাজ। হাতের কোনো স্পর্শ ছাড়াই সম্পুর্ণ মেশিন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত প্রতি পিস ২৭ রুপি ১০০ রসগোল্লা, সরাসরি নীল হাঁড়িতে রাখা হয়।  

বুধবার সকালে সেই রসগোল্লা সোজা চলে যায় নবান্নে। তারপর সেখান থেকে রাজভবনে। রসগোল্লার একজোড়া নীল সাদা হাঁড়ি তুলে দেওয়া হয় পশ্চিমবঙ্গের নতুন রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোসের হাতে।  

এদিন শপথ গ্রহণে মমতার মন্ত্রিসভা ও সাংসদ সদস্যসহ উপস্থিত ছিলেন সিপিআইএম সিনিয়র নেতা বিমান বসু। তবে আমন্ত্রিত থাকলেও উপস্থিত ছিলেন না রাজ্যর বিরোধী দলনেতা ও বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী। যদিও টুইটারে নতুন রাজ্যপালকে অভিনন্দন জানান তিনি।

উল্লেখ্য, পশ্চিমবঙ্গের সাবেক রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় ভারতের উপ-রাষ্ট্রপতি পদে নির্বাচিত হওয়ার পর অস্থায়ীভাবে পশ্চিমবঙ্গে রাজ্যপালের দায়িত্ব সামলান মিজোরামের রাজ্যপাল লা গণেশন। ধনকড় রাজ্যপাল থাকাকালীন সময়ে বিভিন্ন ইস্যুতে মমতার সরকারের সঙ্গে বারে বারে তার সংঘাত দেখা গেছে। রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে বারবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে সমালোচনায় বিঁধেছিলেন ধনকড়।

গত ১৭ নভেম্বর নতুন রাজ্যপাল হিসাবে সিভি আনন্দ বোসের নাম ঘোষণার পরই মমতা ফোন করে তাকে অভিনন্দন জানিয়েছিলেন। কদিন আগে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে সিভি বোসও জানিয়েছিলেন, রাজনৈতিক মমতা নয়, প্রশাসনিক মমতার সঙ্গে কাজ করতে চান তিনি।

এরই ধারাবাহিকতায় এদিন শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে রাজ্য সরকারের তরফে রসগোল্লা উপহার দেওয়া হয় রাজ্যপালকে। ধারণা করা হচ্ছে, নতুন রাজ্যপাল যেন সাবেক রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ে পথ বেছে না নেয়, বরং রাজ্য ও রাজ্যপালে যেনো মিষ্টি সম্পর্ক বজায় থাকে। নীল-সাদা রসগোল্লা তুলে দিয়ে সেই বার্তাই যেনো দিলেন মমতা!

বাংলাদেশ সময়: ১৫০৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৩, ২০২২
ভিএস/এসএ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa