ঢাকা, শুক্রবার, ৬ বৈশাখ ১৪৩১, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৯ শাওয়াল ১৪৪৫

ভারত

কাটমানির ফেরত হচ্ছে, ব্ল্যাকমানিও ফেরত দিন: মমতা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০৩১ ঘণ্টা, জুলাই ২২, ২০১৯
কাটমানির ফেরত হচ্ছে, ব্ল্যাকমানিও ফেরত দিন: মমতা

কলকাতা: সম্প্রতি লোকসভা ভোটে পশ্চিমবঙ্গে শক্তি ক্ষয়ের পর মমতা বন্দোপাধ্যায় তৃণমূল নেতাদের একাংশের বিরুদ্ধে বলেছিলেন, ‘জনসাধারণের কাছ থেকে মোটা অংকের যে যত কাটমানি খেয়েছেন ফেরত দিন।’ এরপরই ‘কাটমানি’ নিয়ে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় গোলমাল লেগেই রয়েছে। 

এই ‘কাটমানি’কে অন্যতম হাতিয়ার করে পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতা দখল করতে চাইছে বিজেপি।

এ নিয়ে রোববারের (২১ জুলাই) শহীদ সমাবেশের মঞ্চে বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

নির্বাচনের পর অগ্নিমূল্য বাজারের পাশাপাশি তার বক্তব্যে উঠে এলো কাটমানি ইস্যুও।

এদিন ব্যাকফুটে না গিয়ে সোজাসুজি ফ্রন্টফুটে ছক্কা চালালেন মোদী সরকারের বিরুদ্ধে। বললেন, ‘তৃণমূলকে কাটমানির কথা বলা হচ্ছে? আপনাদের দেওয়া ১৫ লক্ষ টাকার প্রতিশ্রুতি আগে পালন করুন। ’ 

প্রসঙ্গত, ২০১৪ আগে নরেন্দ্র মোদী ক্ষমতার আসার আগে বলেছিলেন, ক্ষমতায় এলে ভারতের যত ব্ল্যাকমানি বিদেশে রয়েছে তা ফেরত এনে প্রত্যেকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ১৫ লাখ রুপি করে ফেরত দেবো। কিন্তু সে টাকা আজও পায়নি কেউ। সেই বিষয় মঞ্চ থেকে মনে করিয়ে দিয়ে মমতা ব্ল্যাকমানি ফেরতের দাবি করেছেন।  

এদিন লোকসভা ভোটের কারচুপির অভিযোগ তুলে ইভিএমের বদলে ফেরত চাইলেন ব্যালট। বলেন, ‘এবারের ভোট হিস্ট্রি নয়, মিস্ট্রি! বিজেপি যত সিট পাবো বলেছিল ততটাই পেয়েছে। এটা কোনোদিন হয় না। কারচুপি করেছে বলেই সঠিক অংক বলতে পেরেছে। ’ 

‘ইউরোপ-আমেরিকায়ও ইভিএমে ভোট হয় না। ব্যালটে হয়। ভারতেও ভোট ব্যালটে হোক এবং তা শুরু হোক ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচন থেকে। ’ 

এজন্য দলীয় নেতা-কর্মীদের আন্দোলন শুরুর নির্দেশও মঞ্চ থেকেই দিয়েছেন তিনি। হুঁশিয়ারির সুরে রাজ্য বিজেপিকে তৃণমূল প্রধান বলেন, ‘বাংলা মাথা নত করবে না। ইঞ্চি ইঞ্চিতে আমরা বুঝে নেবো। ’
 
বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার ঘটনায় বিজেপির দিকে অভিযোগের আঙুল তুলে তিনি বলেন, ‘বাংলার অপমান করার জন্যই একাজ করা হয়েছিল। ’ 

সভা শেষের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বলেন, যে যার এলাকায় ফিরে বিধানসভা ভোটের আগে পরপর কর্মসূচি আছে সেগুলো পালন করুন এবং জনগণের পাশে থাকুন।  

কার্যত এই মঞ্চ থেকে মমতা ২০২১ সালের বিধানসভা ভোটের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন বলেই মনে করছেন রাজ্যের রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।  

বাংলাদেশ সময়: ২০২২ ঘণ্টা, জুলাই ২১, ২০১৯
ভিএস/এমএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।