ঢাকা, শনিবার, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ভারত

বিরোধীরা প্রধানমন্ত্রী ঠিক করবে ২১ মে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২৩ ঘণ্টা, মে ২, ২০১৯
বিরোধীরা প্রধানমন্ত্রী ঠিক করবে ২১ মে এক মঞ্চে বিরোধী জোটের একাংশের নেতারা

কলকাতা: ভারতের লোকসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণা হবে ২৩ মে। তার ঠিক দু’দিন আগে এক গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে মিলিত হতে চলেছে ভারতের মোদীবিরোধী মহাজোট। ঠিক হবে ক্ষমতায় এলে বিরোধী মহাজোটের প্রধানমন্ত্রী কে হবেন? 

অবশ্য এ বিষয়ে ধোঁয়াশায় আছে খোদ ভারতবাসী। কে হবেন মোদীর প্রতিপক্ষ প্রধানমন্ত্রী? কখনো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, কখনো মায়াবতী, কখনো চন্দ্রবাবু নাইডুর নাম উঠে এসেছে।

তবে বিরোধী জোটের তরফে এখনো স্পষ্ট হয়নি প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থীর নাম।  

হায়দ্রাবাদ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু জানিয়েছেন, আগামী ২১ মে বিরোধী জোটের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বুধবার (১ মে) তেলেগু দেশম পার্টির (টিডিপি) প্রেসিডেন্ট তথা অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে জানান, ২১ মে প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী ঠিক করতে বৈঠক করবে বিরোধী দলগুলি।  

বিরোধী জোটের দলগুলি মূলত আঞ্চলিক দল। কিন্তু বিজেপি বিরোধিতার কারণে তারা একজোট হয়েছে।

কয়েকদিন আগে এক সভায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বিরোধী জোট সম্পর্কে বলেন, তারা প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য নতুন জামা নিয়ে বসে আছেন, আর ২৩ মে-র পরে সেই জামা ছিঁড়ে ফেলবেন।  

সম্প্রতি ন্যাশানালিস্ট কংগ্রেস পার্টি (এনসিপি) নেতা শরদ পাওয়ার তিনজন বিরোধী নেতা-নেত্রীর নাম করেন। পাওয়ার জানান, তার মতে প্রধানমন্ত্রীর হতে পারেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, চন্দ্রবাবু নাইডু ও মায়াবতী।

শোনা যায় এনসিপি নেতা শরদ পাওয়ার নাকি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে রাহুল গান্ধীকে দেখতে চাইছেন না। রাহুলের থেকে বরাবরই আঞ্চলিক নেতা-নেত্রীদের এগিয়ে রাখছেন তিনি।  

বাংলাদেশ সময়: ১৭২০ ঘণ্টা, মে ০২, ২০১৯
ভিএস/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa