ঢাকা, রবিবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৬ মে ২০২৪, ১৭ জিলকদ ১৪৪৫

ভারত

বাংলাদেশ-ত্রিপুরা বাণিজ্য জোরদারে কাজ করছে কেন্দ্রীয় সরকার: মোদি 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৩৩ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭, ২০২৪
বাংলাদেশ-ত্রিপুরা বাণিজ্য জোরদারে কাজ করছে কেন্দ্রীয় সরকার: মোদি 

আগরতলা (ত্রিপুরা): বাংলাদেশের সঙ্গে ত্রিপুরার বাণিজ্যিক সম্পর্ক জোরদারে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার কাজ করছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।  

আসন্ন লোকসভা নির্বাচন উপলক্ষে বুধবার (১৭ এপ্রিল) পশ্চিম ত্রিপুরা আসনে বিজেপির প্রচারণা সমাবেশে তিনি এ কথা জানান।

আগরতলার আস্তাবল ময়দানে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান বক্তা ছিলেন মোদি।

কংগ্রেসের সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কংগ্রেস শাসনকালে উত্তর-পূর্বাঞ্চলের জন্য ‘লুক ইস্ট পলিসি’ ছিল, এর মাধ্যমে উত্তর পূর্বাঞ্চলকে শোষণ করা হতো। কিন্তু বিজেপি ভারতের শাসনক্ষমতায় আসার পর তাদের এই নীতিতে তালা লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে। তার পরিবর্তে বর্তমান বিজেপি সরকার দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের উন্নয়নে ‘অ্যাক্ট ইস্ট পলিসি’ নিয়ে এসেছে। এই পলিসির জন্য উত্তর-পূর্বাঞ্চলে একের পর এক উন্নয়নমূলক কাজ হচ্ছে। সেই সঙ্গে প্রতিবেশী রাষ্ট্র বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক আরও মজবুত করতে নানা পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে ভারত সরকারের তরফে।

মোদি বলেন, ত্রিপুরার উন্নয়নের জন্য বিজেপি সরকার হীরা মডেল নিয়ে এসেছিল। যার সাহায্যে ত্রিপুরা রাজ্যজুড়ে উন্নয়নের ব্যাপক কর্মযজ্ঞ চলছে। এখন এই মডেলের চর্চা সারা দেশেও শুরু হয়ে গিয়েছে। বাংলাদেশের সঙ্গে যোগাযোগ এবং ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়াতে মৈত্রী সেতু স্থাপনসহ দুই দেশের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত করা হয়েছে।  

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর মোদি উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ৫০ বারের বেশি এসেছেন। অথচ আগের কংগ্রেস সরকারের সময় নেতা-মন্ত্রীরা ত্রিপুরা রাজ্যসহ উত্তর-পূর্ব ভারতে কোন অঞ্চলে রয়েছে তা বলতেই পারতেন না। তারা শুধু নির্বাচন এলেই উত্তর-পূর্বাঞ্চলের কথা মনে করতেন।  

মোদি আগামী ১৯ এপ্রিল পশ্চিম ত্রিপুরার লোকসভা আসনে বিজেপির প্রার্থী বিপ্লব কুমার দেব এবং ২৬ এপ্রিল পূর্ব ত্রিপুরা আসনে বিজেপির প্রার্থী কৃতি সিং দেববর্মণকে বিপুল ভোটে জয়ী করার আহ্বান জানান।
 
সমাবেশে মোদির সঙ্গে বিজেপির দুই প্রার্থী ছাড়াও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ডা. মানিক সাহা, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রতিমা ভৌমিক, ত্রিপুরা প্রদেশ বিজেপির সভাপতি রাজীব ভট্টাচার্য, মন্ত্রী রতন লাল নাথ, মন্ত্রী শুক্লাচরণ নোয়াতিয়াসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩১ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭, ২০২৪
এসসিএন/এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।