ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

স্বাস্থ্য

চিকিৎসকরা যথাসময়ে ক্লিনিকে উপস্থিত থাকেন না  

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০৪৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৬, ২০১৯
চিকিৎসকরা যথাসময়ে ক্লিনিকে উপস্থিত থাকেন না  

মুন্সিগঞ্জ: মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেছেন, চিকিৎসকরা রোগীদের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করবেন। যথাসময়ে দেবেন চিকিৎসা সেবা। কিন্তু বিভিন্ন ক্লিনিকগুলোতে গিয়ে দেখেছি- যথাযথ সময়ে চিকিৎসকরা উপস্থিত থাকেন না। 

শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) সন্ধ্যায় মুন্সিগঞ্জের মিরকাদিম পৌর মাঠে মা ও শিশুদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা, হেলথ ক্যাম্প ও অসুস্থ ও হতদরিদ্র মায়েদের অনুদানের চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। মিরকাদিম পৌরসভার সহায়তায় জেলা প্রশাসন এ অনুষ্ঠানে আয়োজন করে।



প্রতিমন্ত্রী বলেন, রাজাকার ও আলবদর দোষড়দের নিয়ে ২০০১ সালে ক্ষমতায় এসে কমিউনিটি ক্লিনিকগুলো বন্ধ করে দিয়েছেন বেগম খালেদা জিয়া। তার ধারণা ছিল, কমিউনিটি ক্লিনিক চালু থাকলে জনগণ ধানের শীষে ভোট না দিয়ে নৌকায় ভোট দেবে। কিন্তু ২০০৮ সালে তিন তৃতীয়াংশ ভোটে নির্বাচিত হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসেন। ক্ষমতায় এসেই কমিউনিটি ক্লিনিকগুলো পুনরায় চালু করেন তিনি। বিগত ১৬ বছরে সাড়া বিশ্বে গড় আয়ু বৃদ্ধির হার ৫ দশমিক ৫০ বছর আর একমাত্র বাংলাদেশে গড় আয়ু বৃদ্ধি পেয়েছে ৭ দশমিক ২৫ বছর।  

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কামরুন নাহার, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বদরুননেছা, অতিরিক্ত সচিব আনোয়ারা বেগম, জয়িতা ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আফরোজা খান।  

জেলা প্রশাসক (ডিসি) মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান, মীরকাদিম পৌরসভার মেয়র শহিদুল ইসলাম শাহীন প্রমুখ। এসময় অসুস্থ ও হতদরিদ্র ১১০ জন মায়ের হাতে চিকিৎসার জন্য অনুদানের চেক তুলে দেওয়া হয়।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪০ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৫, ২০১৯ 
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa