ঢাকা, শনিবার, ৭ বৈশাখ ১৪৩১, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১০ শাওয়াল ১৪৪৫

স্বাস্থ্য

স্বর্ণালীর চিকিৎসায় মেডিকেল বোর্ড গঠন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫২৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ৮, ২০১৭
স্বর্ণালীর চিকিৎসায় মেডিকেল বোর্ড গঠন বাবা-মায়ের সঙ্গে স্বর্ণালী

রাজশাহী: বিরল রোগে আক্রান্ত রাজশাহীর পবা উপজেলার স্বর্ণালীর (১২) চিকিৎসায় মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। বুধবার (৭ নভেম্বর) বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সমন্বয়ে এই বোর্ড গঠন করা হয়। 

এর আগে মঙ্গলবার (৭ নভেম্বর) দুপুরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয় অসুস্থ স্বর্ণালীকে। বর্তমানে সে হাসপাতালের মেডিসিন ইউনিটে-২ এ চিকিৎসাধীন।

রাজশাহীর সিভিল সার্জন তার চিকিৎসার তত্ত্বাবধান করছেন।  

সিভিল সার্জন ডা. সঞ্জিত কুমার সাহা বাংলানিউজকে বলেন, রামেক হাসপাতালের মেডিসিন ইউনিট-১ প্রধান ডা. খলিলুর রহমানের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা শুরু হয়েছে স্বর্ণালীর। ওই চিকিৎসকের নেতৃত্বে বুধবার মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। তাতে মেডিসিন, ডার্মাটোলজি ও সার্জারি বিভাগের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরাও যুক্ত।  

বুধবার সকালে মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা স্বর্ণালীকে দেখেছেন। এ সময় তিনি ও হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জামিলুর রহমানসহ সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকরা সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

স্বর্ণালীর সঙ্গে হাসপাতালের ৩৬ নম্বর ওয়ার্ডের ২৩ নম্বর বেডে রয়েছেন তার মা রুমা বেগম। তিনি বলেন, সকালে চিকিৎসক দল এসে দেখে গেছেন স্বর্ণালীকে। তারা কিছু পরীক্ষা দিয়েছেন। কিন্তু দুপুর গড়িয়ে যাওয়ায় হাসপাতালে পরীক্ষা করানো যায়নি।  

রামেক হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের ইউনিট প্রধান ডা. খলিলুর রহমান বলেন, স্বর্ণালীর এমআরআই, সিটি স্ক্যানসহ রক্তের কিছু পরীক্ষা দেওয়া হয়েছে। এসবের প্রতিবেদন পেলে যত দ্রুত সম্ভব চিকিৎসা শুরু করা হবে।  

এ নিয়ে মেডিকেল বোর্ড কাজ করছে বলেও জানান তিনি।  

স্বর্ণালী রাজশাহীর পবা উপজেলার বড়গাছি ইউনিয়নের তেঘাটা গ্রামের আবদুল মান্নানের মেয়ে। সে পার্শ্ববর্তী নোনামাটিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী। তার ডান হাতে বিরল রোগ দেখা দিয়েছে। কিন্তু অর্থের অভাবে চিকিৎসা বন্ধ ছিল।  

পরে এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ হলে তার চিকিৎসার দায়িত্বভার নেন রাজশাহী সিভিল সার্জন।

বাংলাদেশ সময়: ২১২৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৮, ২০১৭
এসএস/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।