ঢাকা, বুধবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ মে ২০২২, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

ড্যাব ছাড়া বিএমএ’র নির্বাচন বৃহস্পতিবার

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২১, ২০১৬
ড্যাব ছাড়া বিএমএ’র নির্বাচন বৃহস্পতিবার

বিএনপিপন্থি চিকিৎসকদের সংগঠন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশকে (ড্যাব) ছাড়াই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে পেশাজীবী চিকিৎসকদের প্রধান সংগঠন বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) নির্বাচন।

ঢাকা: বিএনপিপন্থি চিকিৎসকদের সংগঠন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশকে (ড্যাব) ছাড়াই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে পেশাজীবী চিকিৎসকদের প্রধান সংগঠন বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) নির্বাচন।

দুই বছর পরপর এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার বাধ্যবাধকতা থাকলেও এবার নির্বাচন হচ্ছে চার বছর পর।

বৃহস্পতিবার (২২ ডিসেম্বর) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত এ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলবে। তবে ড্যাবের অংশগ্রহণ ছাড়া এই নির্বাচন একতরফা হবে বলেই ধারণা সংশ্লিষ্টদের।

ভোটার তালিকা ও নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে আগেই নির্বাচন বর্জন করেছে বিএনপি সমর্থিত চিকিৎসকদের সংগঠন ড্যাব।

এদিকে প্রগতিশীল চিকিৎসকদের সংগঠন ডক্টরস ফর হেলথ অ্যান্ড এনভারনমেন্ট নির্বাচনে অংশ নিলেও সরকার সমর্থিত প্রার্থী যাচাইয়ের ক্ষেত্রে গঠনতন্ত্র অমান্য করার অভিযোগ করেছে তারাও।

বুধবার (২১ ডিসেম্বর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির ছোট মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ডক্টরস ফর হেলথ অ্যান্ড এনভারনমেন্ট’র পক্ষ থেকে বেশ কিছু অসঙ্গতি তুলে ধরা হয়।

প্যানেলের মহাসচিব পদপ্রার্থী ডা. শাকিল আখতার বলেন, এবারের বিএমএ নির্বাচনে যেভাবে প্রার্থীতা যাচাই করা হয়েছে তা গঠনতন্ত্রের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয়। এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনে লিখিত অভিযোগ করা হলেও কোনো উত্তর পাওয়া যায়নি।

এভাবে গঠনতন্ত্রের অনুসরণ না করাকে বিএমএর জন্য নেতিবাচক দৃষ্টান্ত বলে উল্লেখ করেন তিনি। এছাড়াও বিভিন্ন স্থানে তাদের ‘ডা. ফজলুর রহমান-শাকিল আখতার প্যানেলের পক্ষে লাগানো ব্যানার পোস্টার সরিয়ে ফেলার অভিযোগও করেন ডা. শাকিল।

ক্ষমতাসীন দলের চিকিৎসকদের নির্ব‍াচনে প্রভাববিস্তারের সম্ভাবনার বিষয়েও উল্লেখ করেন তিনি।
 
সরকারপন্থি চিকিৎসকদের সংগঠন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) বিরুদ্ধে মহাসচিব প্রার্থী নির্বাচনে গঠনতন্ত্রের পরিপন্থি কাজ করার অভিযোগ উঠেছে। তবে এক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রীকে ভুল বোঝানো হয়েছে বলে মত তাদের।    

বিএমএ সূত্র জানায়, চলতি বছর বিএমএতে সারা দেশে ভোটার সংখ্যা ৩৬ হাজার ১৬৬ জন। ঢাকায় ভোটার সংখ্যা ১৩ হাজার ৭০৪ জন। বিএমএ’র কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মোট ৫১ জন। এর মধ্যে ৪৮টি পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বাকি পদেগুলোতে কো-অপ্ট সদস্য, দুজন বিএমএ’র সাবেক সভাপতি ও মহাসচিব (যদি তারা নির্বাচিত না হন) ও জার্নাল কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে একজন নিয়োগ পান।
 
নির্বাচনে সরকার সমর্থিত চিকিৎসকদের সংগঠন স্বাচিপ থেকে ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিনকে সভাপতি ও ডা. ইহতেশামুল হক চৌধুরীকে মহাসচিব করে প্যানেল ঘোষণা করা হয়েছে। অন্যদিকে ডক্টরস ফর হেলথ অ্যান্ড এনভারনমেন্টের পক্ষথেকে ‘অধ্যাপক ডা. ফজলুর রহমান কে সভাপতি এবং ডা. শাকিল আখতার কে মহাসচিব করে প্যানেল ঘোষণা করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২১, ২০১৬
এমএন/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa