ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ৩০ জুন ২০২২, ২৯ জিলকদ ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

স্বাস্থ্য বিষয়ক সংবাদ বৃদ্ধি করতে হবে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫০১ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৫, ২০১৬
স্বাস্থ্য বিষয়ক সংবাদ বৃদ্ধি করতে হবে

ঢাকা: গণমাধ্যমে কৃষি বিষয়ক সংবাদের গুরুত্ব বৃদ্ধি পাওয়ার ফল পাওয়া গিয়েছে। দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ।

একইভাবে স্বাস্থ্য বিষয়ক সংবাদের গুরুত্ব বৃদ্ধি পেলে স্বাস্থ্য খাতেরও অভাবনীয় উন্নতি হবে বলে মত দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী।

বিশ্ব এনেসথেসিয়া দিবস উপলক্ষে শনিবার (১৫ অক্টোবর) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) মিল্টন হলে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মত দেন তিনি।

ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেন, দেশে চিকিৎসকদের জনগণের আস্থা অর্জন করতে হবে। শুধুমাত্র বাণিজ্যিক কারণে রোগীকে অতিমাত্রায় ওষুধ বা পরীক্ষা করতে দিলে রোগীর মধ্যে ভয়ের সৃষ্টি হয়। অনেক সময় হাসপাতাল ব্যবসায়ীরা আর্থিক লাভের আশায় আইসিইউতে রোগীকে ভর্তি করিয়ে রাখেন। সেখানেও অবহেলার শিকার হন রোগী। রোগীর প্রতি অবহেলা যতো কমবে, রোগীর মৃত্যু সংখ্যাও ততো কমবে, চিকিৎসকের সুনাম বৃদ্ধি পাবে।

উপদেষ্টা বলেন, মানসম্পন্ন চিকিৎসক তৈরি করতে হবে মেডিকেল কলেজগুলোকে। বেসরকারি মেডিকেল কলেজে সার্টিফিকেট বিক্রি করে ডাক্তার বানানো হলে, সাধারণ মানুষ কখনোই চিকিৎসা সেবা পাবে না।

তিনি বলেন, দেশের জনগণের যদি স্বাস্থ্য খারাপ হয়, তাহলে এ খাতে খরচ বেড়ে যাবে। মাথাপিছু আয় বাড়লেও কোনো লাভ হবে না। কারণ, রোগীর চিকিৎসার কারণে খরচ বেড়ে যাবে।

এনেসথিওলজিস্ট বাড়াতে হলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়তেই এনেসথেসিয়া কোর্সে আরও শিক্ষার্থী বৃদ্ধি করতে হবে বলে মত দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল ইসলাম খান।

তিনি বলেন, পেশাদার জনশক্তি বৃদ্ধি করতে হবে। বিএসএমএমইউতে ১৬ টি বিভাগের সার্জারির জন্যে রয়েছে মাত্র একটি এনেসথেসিয়া বিভাগ।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ বলেন, দেশে বর্তমানে ১ হাজার ৫৭৫ জন এনেসথিওলজিস্ট রয়েছে। যার মধ্যে ৬২৬ জন বেসরকারি হাসপাতালে কর্মরত। উপজেলা হাসপাতালগুলোতে এনেসথিওলজিস্টের অভাবে অস্ত্রোপচার সম্ভব হচ্ছে না।

বেতন বৃদ্ধি, চাকরির বয়স বৃদ্ধি করে এনেসথেসিয়ায় মেডিকেল শিক্ষার্থীদের আগ্রহ করার চিন্তা সরকারের রয়েছে বলেও জানান তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের এনেসথেসিয়া শিক্ষক অধ্যাপক ডা. খলিলুর রহমান বলেন, দেশে জেলা পর্যায়ে সব সার্জারির জন্যেই রয়েছেন মাত্র একটি এনেসথিওলজিস্টের পদ। এ পদ সংখ্যা আরও বৃদ্ধি করতে হবে।

বাংলাদেশ এনেসথিওলজিস্ট সোসাইটি'র সভাপতি ডা. মাকসুদুল আলমের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মাহমুদুল হাসান, বাংলাদেশ মেডিকেল ও ডেন্টাল কাউন্সিলের সভাপতি ডা. মোহাম্মদ শহীদুল্লা প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৫, ২০১৬
এমএন/ওএইচ/আরআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa