ঢাকা, শনিবার, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

স্বাস্থ্য

শেবাচিম হাসপাতালে ইন্টার্নদের কর্মবিরতি চতুর্থ দিনে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১০২ ঘণ্টা, জুন ১৪, ২০১৬
শেবাচিম হাসপাতালে ইন্টার্নদের কর্মবিরতি চতুর্থ দিনে

বরিশাল: বরিশাল শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় হাসপাতালে চতুর্থ দিনের মতো চলছে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের কর্মবিরতি।

মঙ্গলবার (১৪ জুন) সকালে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা দোষী পুলিশ সদস্যের শাস্তি ও পাঁচ দফা দাবি আদায়ে হাসপাতালে মিছিল করেছেন।

এর আগে কর্মবিরতির তৃতীয় দিন সোমবার দুপুরে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা হাসপাতাল পরিচালক বরাবর লিখিতভাবে পাঁচ দফা দাবি পেশ করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কর্মবিরতিতে থাকা ইন্টার্ন চিকিৎসক ডা. আবির সাকরান।

তিনি জানান, নারী চিকিৎসককে লাঞ্ছনাকারী পটুয়াখালী জেলা পুলিশের এসআই মনোজ কুমার সরকারের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত ক্ষমা চাওয়া কিংবা তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়ে কোন ধরনের আলোচনা পুলিশ কিংবা হাসপাতাল প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের সঙ্গে করা হয়নি।

তাই তারা এ কর্মবিরতি চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে রোগীদের সেবা করার লক্ষ্যে তারা কাজ করতে ইচ্ছুক। কিন্তু তাদের নিরাপত্তার বিষয় নিয়েই যেহেতু প্রশ্ন সেক্ষেত্রে রোগী দেখতে যাবেন কি করে।

তিনি আরো জানান, সোমবার দুপুরে হাসপাতালের পরিচালকের সঙ্গে তারা আলোচনা বসেন। এসময় তারা ওই পুলিশ সদস্যের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করা, নিরাপত্তার জন্য সুস্থ কর্মপরিবেশ তৈরির লক্ষ্যে পুলিশ ও আনসার নিয়োগ, অন্যান্য হাসপাতালের মতো ভিজিটিং আওয়ার নির্দিষ্ট করা, রোগীর সঙ্গে নির্দিষ্ট সংখ্যক ভিজিটর হাসপাতালে প্রবেশ করতে দেওয়াসহ পাঁচ দফা দাবিসহ একটি স্মারকলিপি পরিচালকের কাছে পেশ করেন।

দাবিগুলো মানার বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়া হলে এ কর্মবিরতি প্রত্যাহার করা হবে বলে জানান তিনি।

এদিকে, মনোজ কুমারকে থানা থেকে ক্লোজড করে পটুয়াখালী পুলিশ লাইনে পাঠানো হয়েছে বলে রোববার সন্ধ্যায় জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ফয়েজ আহম্মেদ।

তবে এ বিষয়ে ইন্টার্নরা কোনো লিখিত আদেশ হাতে পাননি বলে জানান।

বাংলাদেশ সময়: ১০৫৭ ঘণ্টা, জুন ১৪, ২০১৬
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa