ঢাকা, শুক্রবার, ১৩ মাঘ ১৪২৯, ২৭ জানুয়ারি ২০২৩, ০৪ রজব ১৪৪৪

স্বাস্থ্য

‘সরকার নার্সদের প্রতি সহানুভূতিশীল’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪৬ ঘণ্টা, জুন ২, ২০১৬
‘সরকার নার্সদের প্রতি সহানুভূতিশীল’

ঢাকা: বেকার নার্সদের আন্দোলনের বর্তমান পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম জানিয়েছেন, সরকার নার্সদের প্রতি সহানুভূতিশীল। জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে সরকারি চাকরিতে নার্সদের নিয়োগের দাবি সরকার সহানুভূতিশীলতার সঙ্গে সব সময় বিবেচনা  করে।

তিনি বলেন, সরকারি চাকরিবিধি অনুযায়ী পাবলিক সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমেই প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হয়। কোনোভাবেই এর ব্যত্যয় ঘটানোর সুযোগ নেই। অন্য কোনোভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত হলে তাদের চাকরিতে স্থায়ীকরণে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হয়।

বৃহস্পতিবার (০২ জুন) স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বার্তায় এ মত প্রকাশ করেন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নার্সদের প্রতি আন্তরিকভাবে সংবেদনশীল ও সহানুভূতিশীল বলেই নার্সদের পদমর্যাদা দ্বিতীয় শ্রেণিতে উন্নীত করেছেন। পাশাপাশি তিনি দ্রুত ১০ হাজার নার্স নিয়োগেরও নির্দেশ দিয়েছেন।

সরকার সেই প্রক্রিয়ার অংশ হিসাবে ৩ হাজার ৬০০ নার্স নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আরো ৭ হাজার নার্স এই অর্থবছরে (২০১৫-২০১৬) নিয়োগের প্রক্রিয়া চলছে। আগামী অর্থবছরে (২০১৬-২০১৭) আরো ৩ হাজার নার্স নিয়োগ দেওয়ার সিদ্ধান্তও ইতোমধ্যে নেওয়া হয়েছে।

নাসিম বলেন, দেশের নার্স সংকট এবং বেকার নার্সদের অবস্থা বিবেচনা করে ৩ হাজার ৬০০ নার্স নিয়োগ ত্বরান্বিত করতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুরোধের প্রেক্ষিতে পাবলিক সার্ভিস কমিশন ১০০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষার শর্ত শিথিল করে শুধুমাত্র বহুনির্বাচনী প্রশ্ন ও মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে সম্মতি প্রদান করেছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪২ ঘণ্টা, জুন ০২, ২০১৬
এমএন/এএসআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa