ঢাকা, রবিবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৬ মে ২০২৪, ১৭ জিলকদ ১৪৪৫

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

অভিযোজন এক যুদ্ধ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০১১
অভিযোজন এক যুদ্ধ

COPমো: হাসান আব্দুল্লাহ তৌহিদ
ইন্টারন্যাশনাল ক্লাইমেন্ট চ্যাম্পিয়ন
ব্রিটিশ কাউন্সিল
[email protected]



গোপালগঞ্জের প্রত্যন্ত এক গ্রামের নাম মিত্রডাঙ্গা। বছরে ৭/৮ মাসই গ্রামটি পানিতে ডুবে থাকে।

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে সৃষ্ট প্রাকৃতিক দুর্যোগ গ্রামবাসীর কাছে খুবই পরিচিত।  

COP-viligeসারাবিশ্বে যখন জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় বারবার অ্যাডাপটেশন বা অভিযোজন শব্দটি ব্যবহার করা হচ্ছে, ঠিক তখনই গ্রামবাসীর কাছে করা হয়েছিল, ‘জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে পরিবেশের যে এত পরিবর্তন হচ্ছে, প্রাকৃতিক দুর্যোগ আসছে; সে বিষয়ে আপনারা কী করছেন? বিভিন্ন সংস্থা থেকে যে আপনাদেরকে  খাপ খাইয়ে নেওয়ার কথা বলা হচ্ছে, তো এই খাপ খাইয়ে নেওয়া বা অভিযোজন বলতে আসলে আপনারা কী বোঝেন?’ উত্তরে চল্লিশ বছরের বিবাহিতা এক মহিলা গৌরি রাণী বিশ্বাস বলেছিলেন, ‘অভিযোজন হল একটি যুদ্ধ। পরিবেশের সাথে যুদ্ধ করেই আমাদের বেঁচে থাকতে হবে। আর এ যুদ্ধে পরাজয় মানেই নিশ্চিত মৃত্যু। ’

ব্রিটিশ কাউন্সিল এবং বাংলাদেশ সেন্টার ফর এডভান্স স্ট্যাডিজ (বিসিএএস) এর পক্ষ থেকে আমরা ১৫ জন ইন্টারন্যাশনাল ক্লাইমেন্ট চ্যাম্পিয়ন গিয়েছিলাম গোপালগঞ্জের ক্ষতিগ্রস্থ এলাকাগুলো স্বচক্ষে পরিদর্শন করতে। এলাকার নিরীহ মানুষগুলোর নিরন্তর সংগ্রামের জীবনযাত্রা দেখে আমরা সত্যিই আঁতকে উঠেছিলাম।

গোয়ালগ্রাম এবং মিত্রডাঙ্গা এ দুটি গ্রামই বছরের অধিকাংশ সময় পানিতে ডুবে থাকে। আর একাধিকবার বন্যা তো রয়েছেই। আবার মড়ার উপর খাড়ার ঘাঁ হিসেবে এসেছে পানির লবনাক্ততা। শুধু ফসলই নয়; কচুরিপানার জন্মও অনেকাংশে হ্রাস পেয়েছে।

গ্রীষ্মকালে অত্যাধিক তাপমাত্রা আর শীতকালে হাঁড়-কাপুনি শীতের সাথে সাথে হঠাৎই দেখা দিচ্ছে ঝড় কিংবা বন্যার মত নানারকম প্রাকৃতিক দুর্যোগ। বৃষ্টির সময় খরা কিংবা অসময়ে অতিবৃষ্টি মানুষের বেঁচে থাকার আক্লান্ত পরিশ্রমকেও ঠেলে দিচ্ছে অনিশ্চয়তার মুখে। চর্মরোগ, জন্ডিস, গুটি বসন্ত, কিডনি সমস্যা সহ বিভিন্ন রকম পানিবাহিত রোগ আজ হুমকী হয়ে দাঁড়িয়েছে তাদের স্বাস্থ্যের জন্য। অনেকটা বাধ্য হয়েই অনেকেই তিন পুরুষের প্রিয় বসতভিটাকে বিদায় জানিয়ে  পাড়ি জমাচ্ছে নিরুদ্দেশের পথে।  

জীবন মানেই সংগ্রাম। পরিবেশের প্রতিকূলতাকে জয় করেই শত শত বছর ধরে মানুষ এই পৃথিবীতে টিকে আছে। কিন্তু আজ, উন্নত জীবনযাত্রায় অভ্যস্ত আমাদের মত মানুষের জন্য নিরন্তর সংগ্রাম করেও টিকে থাকতে পারছে না নিরীহ মাটির মানুষগুলো। আমরা তো পারি, আমাদের দৈনন্দিন অভ্যাসগুলোকে একটু পরিবর্তন করে একটি সুখী সমৃদ্ধ দেশ গড়তে। আসুন, জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাব মোকাবেলায় আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ হই। সোচ্চার হই একটি সবুজ পৃথিবী গড়তে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।