ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২১ মে ২০২৪, ১২ জিলকদ ১৪৪৫

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

কেটে ফেলা হচ্ছে শ্রীমঙ্গলের ঐতিহ্যবাহী শতবর্ষী বৃক্ষ

ডিভিশনাল সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৪৪ ঘণ্টা, নভেম্বর ৬, ২০১৭
কেটে ফেলা হচ্ছে শ্রীমঙ্গলের ঐতিহ্যবাহী শতবর্ষী বৃক্ষ কেটে ফেলা হলো শ্রীমঙ্গলের স্মৃতিবিজড়িত বটগাছটি,ছবি : বাংলানিউজ

শ্রীমঙ্গল(মৌলভীবাজার): ‘ঝুঁকিপূর্ণ বৃক্ষ’ এই দোহাই দিয়ে কেটে ফেলা হচ্ছে শ্রীমঙ্গলের ইতিহাস ও ঐতিহ্যের স্মৃতি বিজড়িত শতবর্ষী বিশালাকৃতির বটবৃক্ষটি।

সোমবার (৬ নভেম্বর) দুপুরে পর্যটন নগরী শ্রীমঙ্গলের ভানুগাছ রোডের রেলক্রসিং সংলগ্ন বটবৃক্ষটির প্রায় আশিভাগই কেটে ফেলা হয়। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোবাশশেরুল ইসলাম ঘটনাস্থলে গিয়ে গাছটির অবশিষ্ট অংশ রক্ষা করেন।

নাসির নামের জনৈক ঠিকাদারকে এই গাছগুলোর কাটার টেন্ডার দেয়া হয়।

জানা যায়, রাস্তার পাশে অবস্থিত ঝুঁকিপূর্ণ গাছগুলোকে চিহ্নিত করে এর তালিকা অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট বিভাগের অনুমোদনের পর সেগুলো কাটার প্রক্রিয়া শুরু করে সড়ক ও জনপথ বিভাগ।

সুজন, শ্রীমঙ্গল কমিটির সম্পাদক সাংবাদিক কাওসার ইকবাল বাংলানিউজকে বলেন, এই গাছগুলো আমাদের চায়ের শহরের অতীত ইতিহাসের সাক্ষী বহন করে। স্মৃতিবিজড়িত এই বটগাছ আমাদের ঐতিহ্য। কোনো ক্রমেই তা কাটা উচিত নয়। কেটে ফেলা হচ্ছে শ্রীমঙ্গলের স্মৃতিবিজড়িত ঐতিহ্যবাহী বৃক্ষজেলার সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মিন্টু রঞ্জন দেবনাথ বাংলানিউজকে বলেন, ঝুঁকিপূর্ণ গাছগুলোকে চিহ্নিত করার কার্যক্রম আমার আগে যিনি ছিলেন তার সময়ে হয়েছে। সুতরাং গাছগুলো আদতেই ঝুঁকিপূর্ণ কি না, অথবা এলাকার ইতিহাস-ঐতিহ্য বহন করে কি না তা আমি বলতে পারবো না। যদি এগুলো ঐতিহ্যবাহী হয়, তাহলে এগুলোকে কাটার জন্য চিহ্নিত না করাই উচিত ছিল।  

এদিকে মঙ্গলবার (৭ নভেম্বর) সকালে কর্তৃপক্ষ মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত এবং শ্রীমঙ্গলের ঐতিহ্যের নিদর্শন স্টেশন রোডের বিশালাকৃতির শিশির গাছটিও কেটে ফেলার উদ্যোগ নিয়েছে বলে জানা গেছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩১ ঘণ্টা, নভেম্বর ৬, ২০১৭
বিবিবি/আরআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।