ঢাকা, শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৮ মে ২০২৪, ০৯ জিলকদ ১৪৪৫

বিনোদন

করোনায় মারা গেলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কাপ্রাপ্ত চিত্রসম্পাদক মিন্টু

নিউজরুম এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬১৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৯, ২০২০
করোনায় মারা গেলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কাপ্রাপ্ত চিত্রসম্পাদক মিন্টু আমিনুল ইসলাম মিন্টু

করোনায় আক্রান্ত হয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত চিত্রসম্পাদক আমিনুল ইসলাম মিন্টু।

শুক্রবার (১৮ ডিসেম্বর) রাতে রাজধানীর একটি হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

 গুণী এই চিত্রসম্পাদকের বয়স হয়েছিল ৮১ বছর।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন আমিনুল ইসলাম মিন্টু। ফুসফুসের নব্বই শতাংশে করোনার আক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছিল। শ্বাস নিতে পারছিলেন না তিনি। অক্সিজেন দিয়ে রাখা হয়েছিল লাইফ সাপোর্টে।

আমিনুল ইসলাম মিন্টু প্রথম ১৯৮৬ সালে শ্রেষ্ঠ চিত্রসম্পাদক হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন ‘আঘাত’ সিনেমার দিয়ে। এরপর ১৯৮৭ সালে দিলীপ বিশ্বাসের ‘অপেক্ষা’, ১৯৯০ সালে ‘গরীবের বউ’ এবং সর্বশেষ ১৯৯৬ সালে দিলীপ বিশ্বাসের ‘অজান্তে’ সিনেমার জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন তিনি।

মিন্টু ১৯৩৯ সালের ৫ আগস্ট সিরাজগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৬০ সালে প্রখ্যাত চিত্রসম্পাদক বশীর হোসেনের সহকারী হিসেবে ‘চান্দা’ সিনেমা দিয়ে কর্মজীবন শুরু করেন তিনি। একক চিত্রসম্পাদক হিসেবে তার প্রথম কাজ করা মুস্তাফিজ পরিচালিত ‘পয়সে’ সিনেমার মাধ্যমে। এটি মুক্তি পায় ১৯৬৩ সালে।

চিত্রসম্পাদক হিসাবে কাজ করা আমিনুল ইসলাম মিন্টুর সিনেমার মধ্যে রয়েছে- মালা, আখেরি স্টেশন, তালাশ, পায়েল, আনাড়ি, চকোরী, চান্দ অর চাঁদনী, পীচঢালা পথ, দাগ, বিজলী, দি রেইন, কি যে করি, জাদুর বাঁশী, আসামী হাজির, সারেং বউ, অঙ্গার, দাবী, আসামী, ফকির মজনু শাহ, অনুরাগ, সোহাগ, জিঞ্জির, আরাধনা, ভাঙ্গা গড়া, আঘাত, অপেক্ষা, গরীবের বউ, অজান্তে প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৯, ২০২০
ওএফবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।